লাগবে শুধু একটা উপকরণ, রেস্তোরাঁ স্টাইল মাছের ঝোলের রেসিপি এখন হাতের মুঠোয়

বাংলাহান্ট ডেস্ক: মাছে (Fish) ভাতে বাঙালি, কথায় কথায় উঠে আসে এমন প্রসঙ্গ। অবশ্য কথাটা ভুলও নয়। খুব কম বাঙালিই আছে যার মাছ পছন্দ নয়। বাড়িতে হোক বা রেস্তোরাঁয় বাঙালির পাতে মাছ থাকবেই। কিন্তু রেস্তোরাঁ বা দোকানের মতো মাছের ঝোল (Restaurant Style Maacher Jhol) বাড়িতে কিছুতেই রাঁধা যায় না। ওই স্বাদটাই যেন মিস হয়ে যায়।

   

দোকান বা রেস্তোরাঁর মাছের ঝোলের স্বাদের সঙ্গে বাড়িতে রান্না ঝোলের স্বাদের একটা তফাত থাকে, একথা প্রায় সকলেই স্বীকার করবেন। কিন্তু সবসময় বাইরের কেনা খাবার খাওয়াও স্বাস্থ্যের পক্ষে ঠিক নয়। তবে বাড়িতেই যদি নিয়ে আসা যায় রেস্তোরাঁর স্বাদ তাহলে কেমন হয়? এর জন্য লাগবে মাত্র একটি উপকরণ যা উপলব্ধ সব্বার রান্নাঘরেই।

maach

 

উপকরণ:

১. যেকোনো মাছ, টুকরো করে কাটা আলু

২. পেঁয়াজ বাটা, আদা রসুন বাটা, টমেটো বাটা বা পিউরি

৩. গোটা জিরে বাটা

৪. হলুদ, ধনে গুঁড়ো, গরম মশলা গুঁড়ো, লঙ্কা গুঁড়ো, কাঁচালঙ্কা

৫. সর্ষের তেল, নুন, চিনি

প্রণালী:

১. কড়াইতে তেল গরম করে প্রথমে টুকরো করে কেটে রাখা আলুগুলো ভেজে তুলে নিন।

২. অন্যদিকে নুন হলুদ মাখিয়ে রাখুন মাছের টুকরোয়। আলু ভাজা হয়ে গেলে ওই তেলেই এবার ভেজে নিন মাছ।

maacher jhol 1

৩. কড়াইতে আরেকটু তেল দিয়ে তার মধ্যে দিন পেঁয়াজ বাটা। হালকা বাদামি হয়ে আসলে দিয়ে দিন আদা রসুন বাটা।

৪. এবারে দিয়ে দিন টমেটো বাটা। ভাল করে কষিয়ে দিয়ে দিন বেটে রাখা জিরে।

৫. এরপর একে একে দিন হলুদ গুঁড়ো, সামান্য ধনে গুঁড়ো আর লঙ্কা গুঁড়ো।

maacher jhol 2

৬. তেল বের হয়ে আসা পর্যন্ত কষাতে থাকুন মশলাটা।এরপরে দিয়ে দিন ভেজে রাখা আলু। প্রতিটা টুকরোয় মশলা মাখানো হয়ে গেলে পরিমাণ মতো জল আর চেরা কাঁচালঙ্কা দিন।

৭. এরপর স্বাদ মতো নুন আর মিষ্টি দিয়ে ঢাকা দিয়ে দিন।

maacher jhol 3

৮. আলু সেদ্ধ হয়ে গেলে ওর মধ্যে দিয়ে দিন ভেজে রাখা মাছ। ভাল করে নেড়ে নিয়ে গরম মশলা ছড়িয়ে নামিয়ে নিন।