‘কাউন্টডাউন শুরু, আর মাত্র…’, শ্বেতার ছবি পোস্ট করে বিশেষ ইঙ্গিত রুবেলের

বাংলা হান্ট ডেস্ক : টেলি দুনিয়ায় যে কয়টা জুটি দর্শকদের প্রিয় তারমধ্যে একটা হল শ্বেতা আর রুবেলের জুটি। পর্দার বাইরেও এই জুটির জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। আর এই দুই তারকাও কখনোই কিছু লুকিয়ে রাখেননা। রীতিমত শহর দাপিয়ে প্রেম করেন তারা। কখনও রেস্টুরেন্ট তো কখনও আবার আউটিং__হামেশাই তাদের একে অপরের সঙ্গে সময় কাটাতে দেখা যায়। যে কারণে অনুরাগীরাও তাদের বিয়ে নিয়ে বেশ উৎসুক।

দুই তারকাও কিছু কম যাননা। এইদিন ভক্তদের মধ্যে চলতে থাকা জল্পনা উসকে দিয়ে শ্বেতার দুষ্টু মুখের ছবি দিয়ে এক বিশেষ পোস্ট করেছেন রুবেল দাস। ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, ‘কাউন্টডাউন প্রায় শেষ হয়ে এসেছে, আর মাত্র ২ দিনেক অপেক্ষা আমার কিউটি। আর মাত্র দু’দিনের অপেক্ষা!’ তবে কি আর মাত্র দু’দিন পরেই বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন তারা?

   

অভিনেতার এই পোস্ট দেখে এমনই সব প্রশ্ন উঁকি দিয়েছে ভক্তদের মনে। ভক্তদের মনের জল্পনা দূর করতেই আজকের এই পোস্ট। আসলে ব্যাপারটা ঠিক তা নয়। তারা এখনই বিয়ে করছেন না। আসলে আর দুই দিন পর অভিনেত্রী শ্বেতার জন্মদিন। প্রেয়সীর জন্মদিন সেলিব্রেট করার জন্যই দিন গুনছেন রুবেল। সেটাকেই ভক্তরা বিয়ে বলে ভেবে নিয়েছে।

আরও পড়ুন :

পোস্টের কমেন্ট বক্সেও জমা হয়েছে ভক্তদের ভিড়। একজন লিখেছেন, ‘আর ২ দিনের অপেক্ষা, তারপরই পার্টি শুরু।’ কারোর মন্তব্য ‘কিউট ও ফানি এক্সপ্রেশন’। তবে বেশিরভাগ অনুরাগীরই মনের প্রশ্ন, ‘আর দু দিন পরেই বিয়ে করছেন নাকি?’ উল্লেখ্য, এর আগে রুবেলের জন্মদিনেও জমিয়ে পার্টি করেছিলেন শ্বেতা। এবার প্রেমিকার জন্মদিনটাও যে ধুমধাম করেই হবে সেকথা বলাই বাহুল্য।

 

মাঝেই কেউ কেউ আবার রুবেলের অসুস্থতার কথাও মনে করিয়ে দিয়েছেন। আসলে দিনকয়েক আগেই এক বড় দূর্ঘটনা সামলে উঠেছেন অভিনেতা। সিরিয়ালেও এখন অসুস্থতা পর্ব চলছে তার। তবে এই গোটা সময়টা ছায়ার মত তার পাশে ছিলেন প্রেমিকা শ্বেতা। এই বিষয়ে রুবেল বলেন, ‘অনেক কাছের মানুষকেও অনেকে এইরকম সময় পাশে পায় না। যেভাবে শ্বেতা এই সময়টাতে আমার পাশে ছিল। যেভাবে প্রত্যেকটা সময় আমার খেয়াল রেখেছে। শ্যুটিংয়ের সময়ও বাড়িতে এসেছে রোজ। যাতে আমি একা বোধ না করি, ডিপ্রেশনে না ভুগি। আমার পরিবার এই সময় যেভাবে আমার জন্য করেছে, ও ঠিক ততটাই করেছে।’

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর