‘অনেক চেষ্টা করেছিলাম, কিন্তু…’, কেন হল না পরাণ-সাবিত্রীর বিয়ে? দুঃখভরা গল্প শোনালেন অভিনেত্রী

বাংলা হান্ট ডেস্ক : জি বাংলার তথা গোটা টেলিভিশনের শো স্টপার বলা হয় সৌরভ গাঙ্গুলি (Sourav Ganguly) সঞ্চালিত শো ‘দাদাগিরি’ (Dadagiri)। বাংলার আম জনতা তো বটেই, সেই সাথে দাদার সাথে মঞ্চ মাতাতে হাজির হয় সেলিব্রেটিরাও। এই যেমন খুব শীঘ্রই ধামাকা করতে আসছে গোটা ‘প্রধান’ (Pradhan) টিম। এখানেই পরাণ, সৌরভের সঙ্গে খুনসুঁটিতে মেতে উঠলেন সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায় (Sabitri Chatterjee)।

   

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই প্রকাশ্যে এসেছে দেব (Dev), সৌমিতৃষার (Soumitrisha Kundu) নয়া ছবি ‘প্রধান’র প্রোমো। তারপর থেকেই চর্চায় রয়েছে ‘প্রধান’ টিম। তবে ‘দাদাগিরি’র মঞ্চে সাবিত্রী যা করলেন তা দেখে হেসে কুটোকুটি সবাই। এইদিন তিনি জানান, দীর্ঘ জীবনে তিনি তাকেই পছন্দ করেছেন তিনিই নাকি বিবাহিত ছিলেন।

এইদিন ‘দাদাগিরি’র মঞ্চে বর্ষীয়ান অভিনেত্রী জানান, ‘যখনই কাউকে একটু ভালো লেগেছে তখনই তিনদিনের মাথায় শুনলাম তার বউ আছে।’ আর এটা শুনেই হাসিতে ফেটে পড়েন দেব, সৌরভ। সেই অট্টহাসিতে যোগ দেন পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ও। মহারাজা বলে ওঠেন, ‘পরাণ দার হাসি দেখো!’

পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাসি দেখে বর্ষীয়ান অভিনেত্রী বলে ওঠেন, ‘আমার সঙ্গে ওর সম্বন্ধ এসেছিল। অনেক চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু বিয়ে আর করা হল না।’ সাবিত্রীর এই কথা শুনে দেব ও সৌরভ তো বটেই, সেই সাথে হাসিতে ফেটে পড়ে মঞ্চের সবাই। উল্লেখ্য, আগামী শনিবার জি বাংলার পর্দায় আসছে ‘প্রধান’ টিম। রাত্রি সাড়ে নয়টায় দেখতে পাবেন এই শো।

 

জানিয়ে রাখি, ‘প্রধান’ ছবিটি মুক্তি পেতে চলেছে আগামী ২২ ডিসেম্বর। ছবিতে মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছেন দেব এবং ছোটপর্দার প্রিয়মুখ ‘মিঠাই’ ওরফে সৌমিতৃষা কুণ্ডু। ছবিতে পুলিশের ভূমিকায় অভিনয় করছেন দেব এবং সোহম। এই ছবির হাত ধরেই বড় পর্দায় ডেবিউ করছেন জি বাংলার মিঠাইরানী। ছবিতে তাকে দেখা যাবে রুমি চরিত্রে।