টাইমলাইনবিনোদন

টোকাই ধর্ম, টোকাই কর্ম, চুরি করে গান বানান হিমেশ রেশমিয়া! হাটের মাঝে ধরেছিলেন সলমন

বাংলাহান্ট ডেস্ক: চুরিবিদ‍্যা মহাবিদ‍্যা, যদি না পড়ো ধরা। বলিউডে চুরি করতে পারদর্শী তারকাদের সংখ‍্যা কম নেই। কিন্তু সকলেই যে চুরিটা লুকিয়ে রাখতে পেরেছেন এমন নয়। অনেকেই ধরা পড়েছেন, ট্রোলড হয়েছেন। এমনকি প্রকাশ‍্য মঞ্চে অপদস্থও হতে হয়েছে অনেককে। এমনি একবার সুরকার গায়ক হিমেশ রেশমিয়াকে (Himesh Reshammiya) ‘চোর’ বলে দাবি করেছিলেন সলমন খান (Salman Khan)।

ঘটনাটা ২০০৮ সালের। ‘যুবরাজ’ ছবির প্রচার করছেন সলমন ও ক‍্যাটরিনা। তখন জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো সারেগামাপা চ‍্যালেঞ্জ ২০০৯ এ এসেছিলেন দুজনে। শো তে বিচারকের আসনে ছিলেন হিমেশ। সলমন বরাবরই মজার কথা বলার জন‍্য বিশেষ জনপ্রিয়। তবে তাঁর কাছে যেটা হাস‍্যকর সেটা অন‍্যের কাছে তিক্ত অভিজ্ঞতা বহন করে আনে।


শো তে এক প্রতিযোগীর গান শুনে মুগ্ধ হয়েছিলেন সলমন। কিন্তু তাঁর প্রশংসা করতে গিয়ে অভিনেতা বলে বসেন, এবার হিমেশ তাঁর গান চুরি করে নেবেন। স্বাভাবিক ভাবেই জাতীয় মঞ্চে এমন রসিকতা বা অভিযোগ একেবারেই ভালভাবে নেননি হিমেশ। তিনি পালটা প্রশ্ন করেছিলেন, “এখনো পর্যন্ত কোন গানটা চুরি করেছি?”


হিমেশ যে স্পষ্টতই বিরক্ত সেটা বুঝেও অভব‍্যতা চালিয়ে গিয়েছিলেন সলমন। তাঁর নিজের ছবি থেকেই নাকি গান চুরি করেছেন হিমেশ! এরপরেই স্থান কাল পাত্র ভুলে চেঁচিয়ে ওঠেন গায়ক। কিন্তু সলমন তো ছাড়নেওয়ালা নন। তিনি পালটা দাবি করেন, অনু মালিকের থেকে অনেক গান চুরি করেছেন হিমেশ। আবার তার মধ‍্যে এমন অনেক গানও রয়েছে যা কিনা অনু নিজেই চুরি করেছেন!

এরপ‍র গায়ক বলেন, একটি গান নাকি সলমন নিজেই তাঁকে জোরজবরদস্তি নকল করতে বলেছিলেন। কিন্তু সেটা করে ভুল করে ফেলেছিলেন হিমেশ। আর প্রতিজ্ঞা করেছিলেন, আর কোনোদিন কোনো গান চুরি করবেন না। সেই ‘ও প্রিয়া ও প্রিয়া’ গানটি সলমন গাইবার জন‍্য অনুরোধ করলে হিমেশ জোর গলায় ঘোষনা করেছিলেন, “চুরি করা গান হিমেশ রেশমিয়া গায় না!”

Related Articles