‘সেদিন যদিও আরও…’, ২৬ বছর পর তৃণমূলে যোগ দেওয়া নিয়ে বিস্ফোরক শিশির অধিকারী

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ তৃণমূল কংগ্রেসের জন্মলগ্ন থেকে সঙ্গে আছেন। তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অন্যতম সহযোদ্ধা তিনি। সেই শিশির অধিকারীর (Sisir Adhikari) কণ্ঠেই এবার শোনা গেল আক্ষেপের সুর! তৃণমূল করার সিদ্ধান্ত ভুল ছিল, জানালেন বর্ষীয়ান নেতা।

   

বর্তমানে তৃণমূলের (TMC) বয়স প্রায় ২৬ বছর। এত বছর ধরে দলের সঙ্গে যুক্ত শিশির অধিকারী। পরপর তিনবার কাঁথি লোকসভা কেন্দ্র থেকে জয়ী হয়েছেন। মনমোহন সিং সরকারের জমানায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ছিলেন তিনি। একটা সময় এগরার বিধায়কের দায়িত্ব সামলেছেন। এতগুলো বছর তৃণমূলের (Trinamool Congress) সঙ্গে থাকার পর শিশির অধিকারীর উপলব্ধি, তিনি ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন!

পুত্র শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিলেও শিশির অধিকারী এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে দলত্যাগ করেননি। তবে ২০২৪ লোকসভা ভোটের (Lok Sabha Election 2024) আগে কাঁথির সাংসদ কার্যত নিজের অবস্থান বুঝিয়ে দিলেন। তিনি যে আর রাজ্যের শাসকদলের সঙ্গে নেই তা তাঁর কথাতেই একপ্রকার পরিষ্কার।

তৃণমূল করার জন্য আক্ষেপ হয় কিনা জিজ্ঞেস করায় শিশির অধিকারী স্পষ্ট বলেন, ‘আক্ষেপ তো হবেই। ভুল… ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। যদি সেদিন আরও একটু এগিয়ে-পিছিয়ে ভেবে এগোতাম’। বর্ষীয়ান নেতার কথায়, তিনি যদি এত একটু ভেবে এগোতেন তাহলে হয়তো রাজনীতিতে অনেকের জন্ম হতো না। অনেকে হয়তো বিদায় নিতেন্ন। তিনি বলেন, এই জিনিস দেখতে হতো না।

sisir adhikari

আরও পড়ুনঃ জেলের ভেতর যন্ত্রণায় কাবু অর্পিতা! হঠাৎ কী হল পার্থর বান্ধবীর? শোরগোল

রাজ্যের একাধিক দুর্নীতির প্রসঙ্গে টেনে শিশির অধিকারী বলেন, ‘এই বাবু সেই বালু! এই পার্থ সেই পার্থ! আমি ভাবতে পারি না’। কাঁথির সাংসদের কথায়, আসন্ন লোকসভা ভোটে পশ্চিমবঙ্গের সকল আসনে বিজেপি জয়ী হবে। ৪২-এ ৪২ পাবে বিজেপি। যদি ঠিকভাবে ভোট হয় তাহলে তৃণমূল কংগ্রেস একটি আসনেও জয়ী হবেন না বলে মনে করেন তিনি। বর্ষীয়ান নেতার দাবি, ভোট করানোর  জন্য তৃণমূলের তরফ থেকে বড় বড় ফাঁদ পাতা হয়েছিল। তবে সেসব ফাঁস হয়ে গিয়েছে। আর কিছু করতে পারবে না রাজ্যের শাসক দল।

Sneha Paul
Sneha Paul

স্নেহা পাল, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তরের পর সাংবাদিকতা শুরু। বিগত প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর