টাইমলাইনবিনোদন

শুভশ্রীর বাড়িতে চাঁদের হাট, রাজনৈতিক বিদ্বেষ ভুলে আড্ডায় মাতলেন রাজ-রুদ্রনীল-সোহমরা

বাংলাহান্ট ডেস্ক: মহালয়ায় পুজোর (Durgapuja) শুরু, দেখতে দেখতে সেই উৎসবের প্রায় শেষ লগ্নে এসে পৌঁছেছি আমরা। হাতে আর মাত্র এক দিন, তারপরেই মনখারাপের বিজয়া। বাকি মুহূর্তটুকু চেটেপুটে উপভোগ করতে ব‍্যস্ত সকলেই। তারকারাও মজেছেন পুজোর আনন্দে। কারণ উৎসব শেষ হলেই আবারো যে যার নিজের কাজে ফিরে যাবেন। তাই সপ্তমীর রাতে রাজ চক্রবর্তী (Raj Chakraborty) এবং শুভশ্রী গঙ্গোপাধ‍্যায়ের (Subhashree Ganguly) বাড়িতে তারকাদের হাট।

বাইপাস লাগোয়া বিলাসবহুল বহুতল আরবানায় থাকেন রাজ শুভশ্রী। প্রতি বছরই সেখানে ধুমধাম করে দূর্গাপুজোর আয়োজন করা হয়। আর পুজো উপলক্ষে ‘রাজশ্রী’ জুটির বাড়িতে আড্ডা বসে টলিপাড়ার নামীদামী তারকাদের। এ বছরেও তার অন‍্যথা হয়নি।


রাজ শুভশ্রীর বাড়িতে আড্ডা বসেছিল ইন্ডাস্ট্রির একাধিক তারকার। এসেছিলেন সস্ত্রীক আবির চট্টোপাধ‍্যায়, সস্ত্রীক সোহম চক্রবর্তী, রুদ্রনীল ঘোষ সহ অন‍্যরা। ছিল ভরপুর খানপিনার সঙ্গে চলেছে দেদারে আড্ডা। কাজের চাপ, রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বিতা ভুলে নির্মল আনন্দে মেতে উঠলেন সবাই।


সাদা ঢাকাই জামদানি এবং সাদা ব্লাউজে সেজেছিলেন শুভশ্রী। একই রঙা পাঞ্জাবিতে দেখা গেল পরিচালক বিধায়ক রাজকেও। নিজের মতো খেলায় মেতেছিল ছোট্ট ইউভান। তবে অতিথিরা কেউই ইউভানকে আদর না করে যেতে পারেননি। পুঁচকে তারকাও সবার আদর খেয়ে বেজায় খুশি।

অষ্টমীতে শুভশ্রীর সাজ ছিল হালকা গোলাপি শাড়ি, স্লিভলেস ব্লাউজ, সঙ্গে মানানসই গয়না। পাশে উজ্জ্বল সোনালি গোলাপি রঙের পাঞ্জাবিতে দেখা গেল রাজকেও। মায়ের সঙ্গে রঙমিলান্তি পাঞ্জাবি পরেছিল ইউভানও। শুভশ্রীর কোলে উঠে একগাল হাসি দিয়ে পোজ দিয়েছে সে।

পুজোর সময়টা সাধারণত কলকাতাতেই থাকেন রাজ শুভশ্রী। নিজেদের আবাসনের পুজোয় যোগ দেন। আড্ডা হয় বন্ধুবান্ধবদের সঙ্গে। এবারেও তেমনটাই করবেন বলে জানিয়েছিলেন অভিনেত্রী। পুজোর পরেই একগুচ্ছ কাজ রাজ শুভশ্রী দুজনেরই।

Related Articles