এবার আগুন মশলার বাজার! জিরে-ধনে-হলুদ কিনতেই পকেটে টান মধ্যবিত্তের

বাংলাহান্ট ডেস্ক : বেশ কিছুদিন ধরে শাক-সবজির দাম আকাশ ছুঁয়েছে। এবার মধ্যবিত্তর চিন্তা বাড়িয়ে দাম বাড়তে চলেছে মশলার (Spice)। বিশেষজ্ঞদের মতে অতিবৃষ্টির কারণে ব্যাপক হারে দাম বৃদ্ধি পেতে পারে মশলার। গত বছরের তুলনায় এ বছর বেশ কিছু মশলার দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে উল্লেখযোগ্য ভাবে দাম বৃদ্ধি হয়েছে জিরের। বার্ষিক ভিত্তিতে গত মাসে মশলার দাম বৃদ্ধি পেয়েছে ৭৫%।

এরফলে মধ্যবিত্তর রান্নাঘরে রীতিমতো ‘অগ্নিকাণ্ডের’ সৃষ্টি হয়েছে। একই সাথে অতিবৃষ্টি ঘিয়ে আগুন ঢেলেছে। বাজার বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, একদিকে আবহাওয়ার খামখেয়ালিপনা, অন্যদিকে, বাজারে জোগান কম, এই দুই মিলিয়ে মশলার দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। এক বছরে ৭৫ শতাংশ দাম বৃদ্ধি রীতিমতো উদ্বেগজনক ঘটনা বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

   

আরো চিন্তা বাড়িয়ে বিশেষজ্ঞদের ধারণা মূল্য বৃদ্ধি থেকে আগামী বছরও মুক্তি মিলবে না সাধারণ মানুষের। বিশেষ করে জিরের দাম কমার সম্ভাবনা এই মুহূর্তে নেই বললেই চলে। সাধারণত বছরে একবারই ফলন হয় জিরের। এই বছর ৩০ থেকে ৪০ শতাংশ জিরে উৎপাদন কম হয়েছে। এর জন্য মূলত দায়ী খারাপ আবহাওয়া।

এছাড়াও অতি বৃষ্টির ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে হলুদের ফলন। এছাড়াও অন্যান্য ফসল বপন করতে সমস্যা হয়েছে। ব্যাপক পরিমাণে ধনে চাষ হয় রাজস্থানে। কিন্তু এই বছর খারাপ আবহাওয়া ফলে নষ্ট হয়ে গিয়েছে ধনিয়া বেল্ট। অপরদিকে বেশ বৃষ্টি কম হয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ ও তেলেঙ্গানায়। এর ফলে সেখানে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে লঙ্কা চাষ। এরফলে লঙ্কা গুঁড়ো প্রস্তুতিতেও বাঁধা পড়েছে।

home based spice business

ন্যাশনাল কমোডিটি অ্যান্ড ডেরিভেটিভস এক্সচেঞ্জ লিমিটেডের তথ্য বলছে, এই বছরের শুরু থেকেই দাম বৃদ্ধি পেতে শুরু করে জিরের। ৯.১২ লক্ষ টন (LT) জিরে উৎপন্ন হয় ২০১৯-২০ সালে। ২০২০-২১ সালে সেটা কমে গিয়ে ৭.৯৫ লক্ষ টন ও ২০২১-২২ সালে ৭.২৫ লক্ষ টনে নেমে এসেছিল। উৎপাদন অত্যধিক কমে যাওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই অস্বাভাবিক হারে দাম বৃদ্ধি পেয়েছে জিরের।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর