পুলিশের গাড়ি আটকে চাঁদা আদায়! এক ভিন্ন ঘটনার সাক্ষী থাকলেন SI, হাতড়ালেন আবেগঘন স্মৃতি

বাংলাহান্ট ডেস্ক : গত ১৪ই ফেব্রুয়ারি ছিল সরস্বতী পুজো। সরস্বতী পুজো উপলক্ষে মেতে উঠেছিল গোটা বাংলা। পাড়ায় পাড়ায় ছিল বাগদেবীর আরাধনার আয়োজন। বড়দের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ছোটরাও বাগদেবীর আরাধনার আয়োজনে ব্যস্ত ছিল। প্রতিবছরই বিভিন্ন জায়গায় আমরা দেখতে পাই সরস্বতী পুজোর প্যান্ডেল বাঁধা থেকে শুরু করে চাঁদা আদায়, কোনও কিছুতেই পিছিয়ে থাকে না খুদেরা।

   

এবারও অনেক জায়গায় সেই ছবি ধরা পড়েছে। তবে সরস্বতী পুজোর আগে একদল খুদে চাঁদা আদায়ের জন্য থামায় পুলিশের গাড়ি। তারপর যা ঘটনা ঘটল তা সমাজ মাধ্যমে ভাগ করে নিয়েছেন সেই গাড়িতে থাকা এক এসআই। মুর্শিদাবাদের এসআই ময়ূরী ঘোষ সরস্বতী পুজোর আগের দিন বাড়ি ফিরছিলেন।

আরোও পড়ুন : দিঘার কাছে মিসাইল টেস্ট, DRDO-র উপর রেগে কাই গ্রামবাসীরা! তুমুল বিক্ষোভ এলাকায়

একদল কচিকাঁচা রাস্তায় হঠাৎ তাকে আটকায় চাঁদার জন্য। এরপর ময়ূরী দেবী নিজের পরিচয় দেন। তবে তাতেও পিছু হটেনি খুদেরা। ময়ূরী দেবী জানিয়েছেন, আমার গাড়িচালক খুদেদের সরে দাঁড়াতে বলে। তারপর সেই খুদেরা উত্তর দেয়, ‘আমাদের সরস্বতী পুজো আছে। পুলিশ তো কী হয়েছে? আমাদের চাঁদা দিন। আমাদের পুজোর কী হবে?’

আরোও পড়ুন : বাবা রাজমিস্ত্রি, মা বাঁধেন বিড়ি! DRDO-তে সুযোগ পেয়ে তাক লাগিয়ে দিল বাংলার দীন দরিদ্র সুদীপ

চাঁদা নিয়ে কচিকাচাদের ‘হুংকার’ শুনে খানিকটা স্তব্ধ হয়ে যান এই এসআই। যদিও এই কর্মকাণ্ড দেখে বেশ মজাই পাচ্ছিলেন ময়ূরী ঘোষ। অবশেষে ব্যাগ থেকে ৫০ টাকার একটি নোট বের করে তিনি খুদেদের দেন। এরপর কচিকাচারা ৫০ টাকার নোটের ভাংটি দেওয়ার জন্য তৎপর হয়। তবে ময়ূরী ঘোষ জানান যে তিনি পুরো টাকাটাই চাঁদা হিসাবে দিয়েছেন।

Saraswati Puja

এই কথা শুনে আনন্দে লাফিয়ে ওঠে সবাই। এরপর ময়ূরী দেবী চাঁদার রশিদ সংগ্রহ করেন খুদেদের কাছ থেকে। সেই রশিদের ছবি সমাজ মাধ্যমে পোস্ট করেছেন তিনি। এর সাথে ময়ূরী ঘোষ লিখেছেন,  ‘মনটা খুশিতে ভরে গেল। আমি ব্যক্তিগত ভাবে রাস্তা আটকে চাঁদা তোলার পক্ষপাতী নই। কিন্তু এদের দিলে দোষ হয় না। ভালো লাগে।’

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর