ছিলেন ৯ হাজারের নাইট গার্ড! পেলেন ৭৩-৮৩ হাজারের জোড়া সরকারি চাকরি, সাফল্যের রহস্য তাক লাগাবে

বাংলাহান্ট ডেস্ক : ৩১ বছরের প্রবীণ কুমার মাসিক ৯০০০ টাকা বেতনের নাইট গার্ডের চাকরি করতেন ওসমানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে। তবে এই চাকরি মোটেও তাঁর কাঙ্খিত ছিল না। কঠোর অধ্যাবসা ও পরিশ্রমকে সঙ্গী করে আজ প্রবীণ সাফল্যের চূড়ায় পৌঁছেছেন। অদম্য জেদ প্রবীণের ভাগ্যের চাকা ঘুরিয়ে দিয়েছে।

   

নাইট গার্ডের চাকরি করতে করতেই তিনি পেয়ে গেছেন দুটি সরকারি চাকরি। ৯ হাজার টাকা বেতনের চাকরি থেকে প্রবীণ পেয়েছেন ৭৩-৮৩ হাজার টাকার জোড়া সরকারি চাকরি। তেলেঙ্গানার মাঞ্চেরিয়াল জেলার এক দরিদ্র পরিবারে জন্ম প্রবীণ কুমারের। বাবা রাজমিস্ত্রির কাজের সাথে যুক্ত। মা বিড়ি বাঁধেন।

আরোও পড়ুন : তৃণমূলে বিরাট ধাক্কা! পদত্যাগ করছেন বিধায়ক তাপস রায়, আজই BJP-তে যোগদান?

ছোটবেলা থেকে দারিদ্রতা ছিল নিত্য সঙ্গী। তবে প্রবীণ ছিলেন অত্যন্ত মেধাবী। সাফল্যের সাথে এম.কম পাশ করেছেন। এছাড়া বি.এড, এম.এড করেছেন তিনি।পরিবারের অভাব দূর করার উদ্দেশ্যে প্রবীণ নাইট গার্ডের চাকরি নেন ওসমানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে। নাইট গার্ডের চাকরি করতে করতে চালিয়ে যাচ্ছিলেন বিভিন্ন সরকারি চাকরির পরীক্ষার প্রস্তুতি। 

আরোও পড়ুন : ‘আমাদের দলে আসুন’, বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়কে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার আহ্বান শিক্ষামন্ত্রীর

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে প্রবীণের কাছে এসেছে সাফল্য। তার সাফল্যে উচ্ছ্বসিত সকলেই। একসাথে দুটি সরকারি চাকরির নিয়োগপত্র এসেছে প্রবীণের কাছে। স্নাতকোত্তর পাশ শিক্ষক পদে তিনি নিয়োগ পেয়েছেন। অন্যদিকে, জুনিয়র লেকচারার পদেও নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

img 20240304 124946

এই সাফল্যের ব্যাপারে বলতে গিয়ে প্রবীণ জানাচ্ছেন, তিনি চাকরি বলেই মনে করেননি ওসমানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের নাইট গার্ডের চাকরিটিকে। এটি জ্ঞানের পরিধি বাড়ানোর একটি সুযোগ ছিল মাত্র। বই ও অন্যান্য স্টাডি ম্যাটেরিয়াল হাতের কাছে পেয়ে যেতেন। এর বেশি চাহিদা ছিল না তাঁর। সকাল বেলা তিনি পড়াশোনা করতেন ও রাত্রে কাজ করতেন।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর