টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

বিজেপিতে যোগদানের জল্পনা উসকে মমতার ছবি বাদ দিয়েই জনসংযোগ শুভেন্দু অধিকারীর

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ পুজোর আগেই নিজের অবস্থান স্পষ্ট করতে চলেছেন রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী? জল্পনা আরও বাড়লো কারন আজ মেদিনীপুর হয়ে লালগড় দিয়ে নেতাই যাবে শুভেন্দু অধিকারী। গোটা রাস্তায় শুভেন্দুর ছবি থাকলেও রাজ্যের মূখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর ছবি নেই।

এছাড়াও কোনও তৃনমূলের ব্যানার থাকছে না শুভেন্দুর যাত্রাপথে বরং দাদার অনুগামী বলে প্রচার করা হচ্ছে। বেশ কয়েক দিন ধরে শুভেন্দু বাবুর সাথে তৃনমূলের দূরত্ব বেড়েছে৷ শুভেন্দু অধিকারী যেমন পাত্তা দিচ্ছে না তৃনমূলকে তেমনি মমতা ব্যানার্জীরও গুরুত্ব দিচ্ছেন না৷

সম্প্রতি দুটি দুইতলা বাস উদ্বোধন করেছেন রাজ্যে সরকার। সেখানে পরিবহন মন্ত্রী হিসাবে নাম থাকলেও উপস্থিত ছিলেন না শুভেন্দু অধিকারী এবং মমতা ব্যানার্জী নিজেই সেই বাস উদ্বোধন করেন৷।

কোন পথে বাংলার রাজনীতি? সেই নিয়ে যখন জল্পনা বাড়ছে, তখন হঠাৎ করে শুভেন্দুর জনসংযোগের কি উদেশ্যে রয়েছে সেটা সময় বলবে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। মনে করা হচ্ছে, শুভেন্দু বাবু গোটা রাজ্যের জল মেপে নিতে চাইছে তার কতো অনুগামী আছে বা ভোট ব্যাঙ্ক আছে। যদিও নতুন দলের যে সমীকরণ তৈরির কথা ভাবা হচ্ছিল সেটা করলে কতটা বাস্তব হবে, না কি বাংলার প্রধান বিরোধী দল বিজেপিতে যোগদান করবেন সেটাই দেখার বিষয়।

 

শুভেন্দু বাবু নিয়মিত বিজেপি নেতাদের সাথে যোগাযোগ রাখছে।তবু বিজেপির মতো দলের সাথে দর বাড়াতে চাইছে।কিন্ত বিজেপি জাতীয়বাদী দল। গোটা দেশে তাদের ৭০% উপর আসন দখলে রয়েছে। সেই কথা মাথায় রেখে শুভেন্দু বাবুর দর বাড়ানো উচিৎ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। যদি শুভেন্দু অধিকারী যদি এখন না আসে পরে বিজেপি ও চাপ রাখতে পারে। তাই সময় মতো দল করুক বা বিজেপিতে যোগদান করবে সেটা দ্রুত করা দরকার বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।

আজ শুভেন্দু অধিকারীর জন সংযোগ কোন সমীকরণ তৈরি করে সেটাই দেখার৷ এদিকে বিজেপি নেতৃত্বে শুভেন্দু অধিকারীকে স্বাগত জানিয়েছেন।

Back to top button