টাইমলাইনলাইফস্টাইল

পার্লার যেতে চাইছেন না! নেই কোন সমস্যা, ঘরোয়া টোটকাতে বাড়িতে বসেই করুন চুলের পরিচর্যা

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ শাড়িতেই নারী, আর নারীর কেশেতেই (Hair) বেশ। মহিলাদের সাজগোজের অন‍্যতম প্রধান অঙ্গ হল নারীর কেশ। ত্বকের যত্ন নেওয়ার পাশাপাশি মহিলারা চুলের যত্ন নিতে কখনোই ভোলেন না। নানান ধরনের তেল, শ‍্যাম্পু, কন্ডিশনার তো আছেই, সেই সঙ্গে রয়েছে পার্লারের স্পেশাল ট্রিটমেন্ট।

সাধারণ দিন হোক বা কোন অনুষ্ঠান, মহিলারা পার্লারে গিয়ে নিজেদের মুখমণ্ডলের পাশাপাশি চুলেরও পরিচর্যা করেন। আর পুজোর সময় তো কোন কথা হবে না। পুজোর বেশ কয়েক দিন আগে থেকেই লম্বা লাইন পড়ে যায়। কিন্তু এবছর করোনা আবহে দীর্ঘ সময় বন্ধ ছিল পার্লারের দরজা। লকডাউন পর্ব পার করে এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিকের দিকে এগোলেও এখনও অনেকেই পার্লার মুখো হতে চাইছেন না।

পুজো তো এসেই গেছে। আত হাতে গোনা কটা মাত্র দিন বাকি। কিন্তু এখনও যদি পার্লার যেতে মন খচখচ করে, তাহলেও কুছ পরোয়া নেই। বাড়িতেই আপনি পার্লার ট্রিটমেন্টের মত পেয়ে যেতে পারেন সুন্দর সফ্ট চুল।

অনেকেই আছেন যারা ছোট চুল পছন্দ করেন, আবার অনেকেরই পছন্দ লম্বা কেশ। তাই প্রথমেই বলব আপনার মুখের সঙ্গে ম‍্যাচ করে একটা দারুণ হেয়ার কাট করে নিন।

দেখুন আপনার স্ক্যাল্পের এক্সফোলিয়েশন খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। সেক্ষেত্রে সামান্য পরিমাণে খাওয়ার নুন নিয়ে মাথায় হালকা করে মাসাজ করুন। বেশ কিছুক্ষণ করার পর ভালো করে শ‍্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

চুলের পরিচর্যায় নারকেল তেল খুবই উপকারী একটি উপাদান। তবে আপনি যদি নারকেল তেলের সঙ্গে কারিপাতা ভালো করে প্রথমে ফুটিয়ে নিন। তারপর সেটাকে ভালো করে ঠান্ডা করে ছেকে নিয়ে রাতে শোয়ার আগে তেলের মত করে সমস্ত চুলে মাখিয়ে নিন। তারপর সকালে ভালো করে শ‍্যাম্পু করে নিন। এবার দেখুন আপনার চুলের জেল্লা ফেরাতে আর পার্লার যাওয়ার কোন প্রয়োজনই হবে না।

আবার চুলের যত্ন নিতে হেনাও করতে পারেন। চুল কন্ডিশিং করতে এবং পুষ্টি বাড়াতে হেনা খুবই উপকারী একটি উপাদান। তবে যাদের পাতলা চুল, তাদের বলব- হেনার মধ্যে ডিম মিশিয়ে মাখলে আপনি হাতে নাতে প্রমাণ পাবেন। আবার যাদের শুষ্ক চুল তারা, হেনার মধ্যে একচামচ তেল মিশিয়ে নিন। তবে কিন্তু হেনা করার পর ভালো করে শ‍্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিতে হবে।

Back to top button