fbpx
আন্তর্জাতিকটাইমলাইন

অস্ট্রেলিয়ায় দাবানলে দগ্ধ প্রাণী দেহ থেকে উঠছে আর্তনাদ; বেদনার কথা জানালেন তসলিমা

 

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ কোথাও যেন একটা হাহাকার আর্তনাদ শোনা যায় সেইসব প্রাণীদের মধ্যে থেকে যারা অস্ট্রেলিয়ায় পুড়ে ছারখার হয়ে গেছে। মর্মস্পর্শী ভিডিও এবং ছবি চিত্রগ্রাহকের ক্যামেরায় ধরা পড়েছে। তাতে পশুপ্রেমী মানুষের মধ্যেও পৌঁছেছে সেই আর্তনাদ।

“বন্যেরা বনে সুন্দর শিশুরা মাতৃক্রোড়ে ” কিন্তু সেই সুন্দরতা আজ যেন কোথায় লীন হয়ে গেছে। অগ্নির লেলিহান শিখার কাছে। ছোট প্রাণ, কিন্তু তারা মানুষের নয়। তাদের মধ্যে নিষ্পাপ প্রাণ আছে। তারা অসহায় ভাবে পুড়ে মরছে অস্ট্রেলিয়ার এই সুদূর জঙ্গলে। দাবানলের আগুন জানে না সেই রক্তমাংসের প্রাণীগুলো কাঁদছে। সোশ্যাল মিডিয়া থেকে খবরের জগৎ উত্তাল তাদেরকে নিয়ে।

কিন্তু তাসলিমা নিজের ভাষায় তার বেদনার কথা জানালেন সোশ্যাল মিডিয়ায় -“কোথায় কোন মানুষ কোন মানুষকে পেটাচ্ছে, কাকে ফাসাচ্ছে, কাকে খুন করছে, কে কার সর্বনাশ করছে, আমার আর জানতে ইচ্ছে করে না।”

তিনি আরও বলেন,”আজ আমি চোখের জল ফেলছি অস্ট্রেলিয়ার অরণ্যবাসী প্রায় ৫০ কোটি অসহায় প্রাণীর জন্য, যারা লেলিহান অগ্নিশিখার আগ্রাসন থেকে পালাতে চেয়েছে, দিগবিদিক উন্মাদের মতো ছুটেছে বাঁচার জন্য, কিন্তু পথ পায়নি বেরোবার। জ্যান্ত পুড়ে মরেছে। জানিনা, হয়তো অনেক দুস্প্রাপ্য প্রজাতি বিলুপ্তও হয়ে গেছে। “এসেই তার একটি বাক্য যেন গোটা জগতের প্রাণের অস্তিত্ব কে ছুয়ে যায় অন্তরাত্মার মধ্যে দিয়ে”জগত কাঁদুক।”

Back to top button
Close