টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

‘যেতে দেব না” প্রিয় শিক্ষকের বদলি আটকাতে রাস্তায় পড়ুয়ারা! শামিল হলেন অভিভাবকরাও

বাংলাহান্ট ডেস্ক : বাংলা সিনেমায় বহুবার আমরা দেখেছি গ্রামের প্রিয় ডাক্তারবাবু বা পুলিশ কাকু বদলির ঘটনায় বিরোধিতা করে বিক্ষোভ জানাচ্ছেন গ্রামবাসীরা। তারা কিছুতেই তাদের প্রিয় ডাক্তারবাবু বা পুলিশ কাকুকে অন্যত্র বদলি হতে দেবেন না। সিনেমায় দেখা এই ঘটনাই যেন সত্যি হয়ে ফুটে উঠলো বনগাঁর ধর্মপুকুরিয়া অবৈতনিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে।

উপর থেকে বদলির অর্ডার এসেছে প্রিয় শিক্ষকের। কিন্তু তাকে ছাড়তে নারাজ ছাত্র-ছাত্রী থেকে অভিভাবক সকলেই। কোনোরকম ভাবে বদলি আটকানোর পথ না পেয়ে শেষমেশ তারা হাঁটলেন বিক্ষোভের পথে।

দীর্ঘ ১২ বছর ধরে অর্থাৎ প্রায় এক যুগ ধরে ধর্মপুকুরিয়া অবৈতনিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করছেন তন্ময় বসু। শিক্ষকতার পাশাপাশি এই স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব সামলাচ্ছেন তিনি। সম্প্রতি বাড়ির কাছের কোন স্কুলের বদলির জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে বদলির আবেদন জানিয়েছিলেন তন্ময় বাবু। সেইমতো মঞ্জুর হয় আবেদন। কিন্তু বদলির এই সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারছেন না পড়ুয়ারা। তাদের সাথে সাথ দেন অভিভাবকরাও। তন্ময় বাবু যাতে তার বদলির সিদ্ধান্ত ফিরিয়ে নেন সেই মর্মে অনুরোধ করেন ছাত্র-ছাত্রী ও অভিভাবকেরা। কিন্তু সেই অনুরোধে কাজ দেয়নি।এই মর্মে মঙ্গলবার দুপুরে এসআই অফিসে ডেপুটেশন দেন তাঁরা। তারপর শুরু হয় বিক্ষোভ। তারা জানিয়ে দিয়েছেন যতক্ষণ না তন্ময় বাবুর বদলি আটকানো হয় ততক্ষণ বিক্ষোভ চলতে থাকবে।

কিছুদিন আগেও এরকম ঘটনার সাক্ষী ছিল সন্দেশখালির কানমারি বিদ্যামন্দির। শিক্ষক তুষারকান্তি রায়ের বদলির নির্দেশের বিরোধিতা করে গত এপ্রিলে বিক্ষোভ দেখান পড়ুয়া ও অভিভাবকেরা। শিক্ষকমহলের দাবি,কিছু বিক্ষোভের ইতিবাচক দিক রয়েছে।যখন সমাজে শিক্ষক – ছাত্র সম্পর্ক তলানিতে এসে পৌঁছেছে তখন কিছু ঘটনা আশ্বাস জোগায়।

Related Articles