ছিলেন ক্রিকেটার, চোটে শেষ হয় কেরিয়ার, জীবনের ২২ গজে ছক্কা হাঁকাচ্ছেন IPS কার্তিক

বাংলা হান্ট ডেস্ক : জীবনে কখনই একেবারে সফলতা আসে না, তবে নিজের লক্ষ্যের প্রতি তিনি হাল ছাড়েননি। নিজের স্বপ্ন পূরণের জন্য প্রথম থেকেই লড়াই করে গিয়েছেন। ক্রিকেটের (Cricket) দুনিয়া থেকে আইপিএস (Indian Police Service) হয়ে ওঠার গল্পটা আসলে কি? চলুন দেখেনি।

   

আমরা ছোটো থেকেই শুনে এসেছি খেলাধুলা এবং পড়াশোনা হচ্ছে সবচেয়ে জটিল কম্বিনেশন। কারণ দুটো কখনই একসাথে চালানো সম্ভব নয়। কারণ খেলাধুলায় মত্ত থাকলে পড়াশোনা হবে না। কিন্তু এই ধারণা একেবারে বদলে ফেললেন একজন ব্যক্তি। তিনি সকলকে বুঝিয়ে দিয়েছেন, যেমন ক্রিকেটের ব্যাট (Cricket Bat), বল (Ball) দিয়ে চার আর ছক্কা মারা যায় ঠিক তেমনিই খেলাধুলার সাথে মন দিয়ে পড়াশোনা করলে জীবনে প্রতিষ্ঠিত হওয়া যায়।

আজকে এমনি এক ব্যক্তির গল্প বলবো আপনাদের। হায়দ্রাবাদে তাঁর বড় হয়ে ওঠা। তিনি কম বয়স থেকেই ক্রিকেট খেলা শুরু করেন। এছাড়া তিনি অনূর্ধ্ব ১৯ স্তর পর্যন্তও ক্রিকেট খেলেছেন। কিন্তু পরে তিনি নিজের পথ বদলান। তিনি হলেন, কার্তিক মাধিরা(Karthik Madhira)। তিনি তাঁর ইঞ্জিনিয়ারিং কমপ্লিট করেছেন ‘জহরলাল নেহেরু টেকনোলজিক্যাল ইউনিভার্সিটি’ (Jawaharlal Nehru Technological University) থেকে।

তিনি অল্প বয়স থেকেই ক্রিকেট খেলতেন। কিন্তু ক্রিকেট খেলার পাশাপাশি তাঁর ব্যক্তিগত কিছু কারণে তিনি নিজের পথ বদলান। সেইসময় তিনি ডেলয়েটে ৬ মাস কাজ করেছিলেন। কিন্তু বুঝতে পেরেছিলেন যে হয়তো এভাবে তিনি কাজ করতে পারবেন না। তাই সেখান থেকে তাঁর পথ চলা শুরু হয় স্বপ্নের উদ্দেশ্যে।

abb

তিনি তাঁর স্বপ্ন পূরণের জন্য সিভিল সসার্ভি পরীক্ষার (Civil Service Examination) জন্য প্রস্তুতি নিতে শুরু করেন। প্রথম দিকে কয়েকবারই ব্যর্থ হন। তাতেও তিনি কিন্তু নিজের হাল ছেড়ে দেননি। ২০১৯ সালে চতুর্থবারের ইউপিএসসি (UPSC) পরীক্ষায় সফল হন কার্তিক মাধিরা। পরীক্ষায় তিনি অল ইন্ডিয়া ১০৩ র‍্যাঙ্কে উত্তীর্ণ হন। এবং বর্তমানে তিনি মহারাষ্ট্র (Maharastra) ক্যাডারে কর্মরত।