টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিধানসভা নির্বাচন

ভোটের আগেরদিন বাড়ল শুভেন্দুর নিরাপত্তা, এবার তাঁকে ঘিরে থাকবেন ১৫ মহিলা CRPF

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ  রাত পোহালেই দ্বিতীয় দফার নির্বাচনে ‘হটস্পট’ কেন্দ্র নন্দীগ্রামে ভোটগ্রহণ। অন্তিম লগ্নের প্রচার শেষ করে সব দলই এখন ভোটগ্রহণের প্রহর গুনছে। হাইভোল্টেজ এই লড়াই কেন্দ্রে একদিকে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, অন্যদিকে বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী। সংযুক্ত মোর্চার তরফে ওই কেন্দ্রে লড়াইয়ের ময়দানে নেমেছেন বাম যুব DYFI এর রাজ্য সভানেত্রী মিনাক্ষী। সবমিলিয়ে নন্দীগ্রামের ভোটগ্রহণ এবারের নির্বাচনে হয়ে উঠতে চলেছে নজরকাড়া।

গত কাল শেষ মুহূর্তের প্রচার শেষে সন্ধ্যার পরই নন্দীগ্রামে (Nandigram) জারি হয়েছে ১৪৪ ধারা। ওই কেন্দ্রের প্রতিটি বুথে যাতে সবাই শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট দিতে যেতে পারে, তার জন্য নন্দীগ্রামের প্রতিটি মোড়ে মোড়ে শুরু হয়ে গিয়েছে নাকা চেকিং। ওই হাইভোল্টেজ কেন্দ্রে নির্বাচনী প্রচার ঘিরেও উঠে এসেছিল একাধিক রাজনৈতিক হিংসার খবর। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee) ঘিরে বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের জয় শ্রীরাম স্লোগান থেকে শুরু করে বিজেপি (BJP) প্রার্থী সদ্য তৃণমূল ত্যাগী শুভেন্দুর (Suvendu Adhikari) গাড়ি ঘিরে তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের বিক্ষোভ। যা থেকে অন্তিম লগ্নের প্রচার হয়ে উঠেছিল উত্তপ্ত।

Rebel Suvendu Adhikari quits Trinamool; Asansol's outgoing mayor steps down | Hindustan Times

তারই মাঝে আজ অকস্মাৎ ফের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে শুভেন্দু অধিকারীর। এর আগে গেরুয়া শিবিরের পতাকা হাতে তুলে নেওয়ার পরপরই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে তাঁর নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে দেওয়া হয়েছিল বুকেট প্রুফ গাড়ি ও জেড ক্যাটাগরির নিরাপত্তা। ২৪ ঘন্টায় তাঁর নিরাপত্তায় নিযুক্ত ছিল ৩০ জন কেন্দ্রীয় জাওয়ান। এমনকি সবসময় তাঁকে ঘিরে রাখতেন ১০ জন কম্যান্ডো।

থাকতেন একজন মহিলা সিআরপিএফও। তদুপরি শুভেন্দুর প্রচার লক্ষ করে কখনও কালো পতাকা দেখানো তো বারবার তাঁর উপর চড়াও হওয়ার ঘটনা সামনে এসেছে। এমনকি তার প্রাণ সংশয় নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে পাওয়া নিরাপত্তার আগে কলকাতা হাইকোর্টের কাছে তাঁকে নিরাপত্তা প্রদানের আর্জি জানিয়েছিলেন।

এরইমধ্যে ২৪ ঘন্টা বাদে যেখানে শুরু হতে চলেছে হাইভোল্টেজ ভোটগ্রহণ, তখনই আজ হটাৎ শুভেন্দুর নিরাপত্তা বেষ্টনী আরও কড়াকড় করল নির্বাচন কমিশন (Election Commission)। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে। এবার তাঁকে ঘিরে থাকবেন ১৫ জন মহিলা সিআরপিএফ (CRPF)। যা নিয়ে ইতিমধ্যেই রাজনৈতিক মহলে শুরু হয়েছে জোর চর্চা। এমনকি ভোটের আগের দিনই এমন ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তা প্রদানকে অনেকে তাৎপর্যপূর্ণ বলেও মনে করছেন।

এও জানা গিয়েছে যে, শুভেন্দুকে প্রচারে বেরিয়ে একাধিকবার মহিলাদের বিক্ষোভের মুখে পড়তে হয়েছে। তার ফলস্বরূপই বিজেপি প্রার্থী তথা ‘ভূমিপুত্র’ শুভেন্দু অধিকারীর নিরাপত্তা আরও বাড়ানো হয়েছে। তাঁর নিরাপত্তায় দেওয়া হয়েছে এবার মহিলা সিআরপিএফ।

Back to top button