টাইমলাইনটেক নিউজভারত

এবার ২৩০ টাকায় ১ বছরের জন্য সক্রিয় থাকবে আপনার নম্বর! প্রতি মাসে খরচ হবে মাত্র ১৯ টাকা

বাংলা হান্ট ডেস্ক: গত বছরের শেষ থেকেই ভারতের অন্যতম তিনটি টেলিকম অপারেটর সংস্থা Jio, Airtel এবং Vi তাদের গ্রাহকমহলকে ক্ষুন্ন করেছে। মূলত, এই সংস্থাগুলি ক্রমশ তাদের রিচার্জ প্ল্যানগুলির দাম বাড়িয়েছে। যার ফলে পকেটে টান পড়েছে গ্রাহকদের। এমনকি, এই দাম বৃদ্ধির ফলে গ্রাহকেরা মনে করেছিলেন যে, রিচার্জ প্ল্যাগুলির বৈধতা হয়ত ২৮ দিন থেকে বাড়িয়ে ৩০ বা ৩১ দিনের করা হবে। কিন্তু, এখনও সেই পথে হাঁটেনি সংস্থাগুলি।

বরং, আগের মতোই ২৮ দিনের বৈধতাযুক্ত প্ল্যানগুলি নিয়ে আসছে ওই কোম্পানিগুলি। যার ফলে স্বাভাবিকভাবেই ক্রেতারা তা ভালোভাবে নিচ্ছেন না। এমনতাবস্থায়, Jio, Airtel এবং Vi-কে এবার কড়া টক্কর দিয়ে রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিকম সংস্থা BSNL এবার একদম স্বল্পমূল্যে ৩০ দিনের বৈধতা যুক্ত একটি প্ল্যান নিয়ে এসেছে। যার জন্য প্রতি মাসে আপনাকে খরচ করতে হবে মাত্র ১৯ টাকা।

জানা গিয়েছে যে, বর্তমানে BSNL-এর এই প্ল্যানটি বাজারে অন্যতম সস্তা প্ল্যান হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, কিছু মাস আগেই TRAI (Telecom Regulatory Authority of India) সমস্ত সংস্থাগুলিকে ২৮ দিনের পরিবর্তে ৩০ দিন অথবা ৩১ দিনের রিচার্জ প্ল্যান গ্রাহকদের জন্য উপলব্ধ করতে নির্দেশ দিয়েছিল। এমতাবস্থায়, নামমাত্র কিছু প্ল্যান নিয়ে আসা হয় সংস্থাগুলির পক্ষ থেকে। কিন্তু, এবার BSNL কড়া প্রতিযোগিতায় ফেলেছে বাকিদেরকে।

BSNL-এর সস্তা প্ল্যান:
BSNL-এর এই ১৯ টাকার রিচার্জ প্ল্যানটির নাম হল Voice Rate Cutter_19। এই রিচার্জে, অন-নেট কল এবং অফ-নেট কলের হার কমিয়ে ২০ পয়সা/মিনিট করা হবে। পাশাপাশি, এই রিচার্জ প্ল্যানের সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট্য হল, কোনো BSNL গ্রাহক যদি তাঁর মোবাইল নম্বরে ১৯ টাকার একটি প্ল্যান রিচার্জ করেন, সেক্ষেত্রে তিনি পুরো ৩০ দিনের জন্য মোবাইল নম্বরের বৈধতাও পাবেন। অর্থাৎ, এই রিচার্জের সবচেয়ে বড় সুবিধা হল যে, এই সময়ের মধ্যে অন্য কোনো ব্যালেন্স বা ডেটা প্যাক রিচার্জ না থাকলেও, BSNL নম্বরটির পাশাপাশি সমস্ত পরিষেবাও চালু থাকবে।

এদিকে, বৈধতার ক্ষেত্রে, BSNL-এর এই প্ল্যানটিকে সবচেয়ে সেরা হিসেবে পরিগণিত করা হচ্ছে। কারণ, আমাদের দেশে এমন অনেক মোবাইল ব্যবহারকারী রয়েছেন, যাঁরা তাঁদের ফোন নম্বর সক্রিয় রাখতে চান কিন্তু বারবার রিচার্জ করতে চান না। এই ধরনের গ্রাহকদের জন্য, ১৯ টাকায় ৩০ দিনের বৈধতা সুবিধাপ্রদান করবে বলে মনে করা হচ্ছে।

অন্যদিকে, যদি আমরা পুরো বছরের হিসাব করি, তাহলে (১৯ টাকা x ১২ মাস) প্রায় ২২৮ টাকায়, মোবাইল নম্বরটি এক বছরের জন্য সক্রিয় করা যেতে পারে। এমতাবস্থায়, Jio, Airtel এবং Vi-এর চেয়ে অনেক কম মূল্যে মোবাইল নম্বর সক্রিয় রাখতে পারবেন গ্রাহকেরা।

তবে, মনে রাখবেন যে এই রিচার্জ প্ল্যানে কোনো ভয়েস কলিংয়ের সুবিধা পাওয়া যাবে না। পাশাপাশি, কোনো ইন্টারনেটের সুবিধাও মিলবেনা। যার ফলে ফোনে ইন্টারনেট চালাতে আলাদা রিচার্জ করতে হবে। একইভাবে, কল করার জন্য একটি পৃথক টপ-আপের প্রয়োজন হবে। তবে, এই রিচার্জের পরে, আউটগোয়িং কলগুলির জন্য প্রতি মিনিটে মাত্র ২০ পয়সা চার্জ করা হবে এবং BSNL-এর এই প্ল্যানে, ইনকামিং সম্পূর্ণ বিনামূল্যে দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি, সংস্থার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট অনুযায়ী জানা গিয়েছে, এই প্ল্যানটি বর্তমানে শুধুমাত্র ঝাড়খণ্ড সার্কেলে উপলব্ধ রয়েছে।

BSNL 4G:
বেসরকারি টেলিকম সংস্থাগুলির তুলনায় BSNL যে জিনিসটিতে সবচেয়ে বেশি পিছিয়ে রয়েছে তা হল 4G পরিষেবা! যখন Jio, Airtel এবং Vi 5G নেটওয়ার্কের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে, তখন BSNL 4G এখনও সমগ্র ভারতে উপলব্ধ নেই। কিন্তু শীঘ্রই BSNL-এর দিন বদলে যেতে চলেছে। জানা গিয়েছে যে, চলতি বছরের ১৫ আগস্ট অর্থাৎ স্বাধীনতা দিবসের দিন, BSNL-এর 4G পরিষেবা শুরু হতে পারে। শুধু তাই নয়, BSNL 5G NSA নেটওয়ার্কও খুব শীঘ্রই চালু হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

নেটওয়ার্ক পরিষেবার সমস্যা:
বর্তমান সময়ে ক্রমবর্ধমান দামের কারণে বহু গ্রাহক Jio, Airtel এবং Vi-এর থেকে মুখ ফিরিয়ে BSNL-এর প্রতি আকৃষ্ট হচ্ছেন। পাশাপাশি, BSNL-কে একটি সস্তা এবং ভালো বিকল্প হিসেবেও বিবেচনা করা হচ্ছে। তবে, এখনও BSNL-এর নেটওয়ার্ক এবং সার্ভিসের সমস্যা থাকায় ব্যবহারকারীদের পরিষেবায় বিঘ্ন ঘটছে।

এই প্রসঙ্গে ব্যবহারকারীরা জানিয়েছেন যে, সংস্থাটি যদি উন্নতি করে, তাহলে লক্ষ লক্ষ গ্রাহক তাঁদের মোবাইল নম্বর BSNL-এ পোর্ট করবেন। পাশাপাশি, তাঁরা মনে করছেন যে, BSNL-এর কার্যকারিতার উন্নতি ঘটলে আগামী সময়ে দেশের এই রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিকম সংস্থাই হয়ে উঠতে পারে ভারতের বৃহত্তম টেলিকম সংস্থা।

Related Articles

Back to top button