বিশ্বকাপে নিজের এই বড় শক্তিটা ব্যবহারই করবেন না কোহলি! হতাশ BCCI ও ভারতীয় দল

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্কঃ আর মাত্র দুই দিনের অপেক্ষা। তারপর আরম্ভ হয়ে যাবে ওডিআই বিশ্বকাপের (2023 ODI World Cup) লড়াই। ওডিআই বিশ্বকাপের ক্ষেত্রে শেষ তিন সংস্করণে দেখা দিয়েছে যে আয়োজক দেশের হাতেই ট্রফি উঠেছে। ফলে খুব স্বাভাবিকভাবেই এবার যেহেতু বিশ্বকাপ ভারতের মাটিতে আয়োজিত হচ্ছে তাই রোহিত শর্মার ভারতীয় দলের (Indian Cricket Team) ওপর বাড়তি চাপ থাকবে। আর এই চাপের বোঝা কাধে নিয়ে ভারতীয় দলকে নিজেদের লক্ষ্যে পৌঁছতে দেওয়ার জন্য যে ক্রিকেটারের ওপর ভক্তরা সবচেয়ে বেশি ভরসা করতে চলেছেন তিনি হলেন বিরাট কোহলি (Virat Kohli)।

   

সকলেই জানেন যে শেষ কয়েকটা বছর বিরাট কোহলির কেরিয়ারের খারাপ সময়ে চলছিল। কিন্তু গত বছরের শেষ দিক থেকে সেই সময়টা কাটিয়ে উঠেছেন বিরাট। এখন তিনি আবারও নিজের সেরা ছন্দ না হলেও ভালো ছন্দ খুঁজে পেয়েছেন। ধারাবাহিকভাবে রান করছেন প্রতি ফরম্যাটে। ভক্তরা আবারও বিশ্বাস করছেন যে বিরাট কোহলিকে নিয়ে বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্ন তারা দেখতে পারেন।

বিরাট কোহলির যে বিষয়টা সবথেকে বেশি প্রভাব ফেলে বিপক্ষের মনে সেটা হলো তার আগ্রাসন। মাঠের ভেতর সবসময় প্রতিপক্ষের চোখে চোখ রেখে লড়াই করতে অভ্যস্ত তিনি। ব্যাটিংয়ের সময় স্লেজিং করতে থাকা কোনও বোলারকে বাউন্ডারিতে পাঠিয়েই হোক বা ফিল্ডিংয়ের সময় প্রতিপক্ষ দলের হয়ে দীর্ঘক্ষণ ক্রিজে ব্যাটিং করা কোনও ব্যাটারকে দুর্দান্ত ক্যাচ নিয়ে ড্রেসিংরুমে ফেরানোই হোক, বিরাট সব সময় তার ব্যাটিং বা ফিল্ডিংয়ের পাশাপাশি মুখের ভাষাতেও প্রতিপক্ষকে অস্বস্তিতে ফেলেছেন।

shakib kohli

আরও পড়ুন: এই বিশেষ দলটি নিয়ে সতর্ক না থাকলে ভুগবে ভারত! BCCI-কে সতর্ক করলেন প্রাক্তন ভারতীয় ওপেনার

কিন্তু সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে বিরাট কোহলি জানিয়েছেন যে তার ওই আগ্রাসী আনন্দ উদযাপন বা প্রতিপক্ষকে মুখের ভাষা দিয়ে অস্বস্তিতে ফেলার চেষ্টার বিষয়গুলি এখন অতীত। যুবা বয়সে তিনি ওই জাতীয় উগ্র উদযাপন করতেন। কিন্তু এখন তার মধ্যে পরিণতিবোধ এসেছে। তাই ওই জাতীয় ঝামেলা এড়িয়ে যান নিজে থেকেই।

আরও পড়ুন: কোন ভারতীয় বোলারকে সবচেয়ে বেশি ভয় পাচ্ছে পাকিস্তান? জবাব দিলেন পাকিস্তানের তারকা ক্রিকেটারই

কিন্তু তার এই সিদ্ধান্তে অনেকেই খুশি নন। তিনি ভারতীয় দলে এই আগ্রাসী মনোভাবের সঞ্চার ঘটিয়ে দলের অনেক উন্নতি করতে পেরেছিলেন বলে বিশ্বাস করেন তার ভক্তরা। ঘরের মাটিতে বিশ্বকাপে যদি তাকে কেন্দ্র করে আগ্রাসনের নীতি ভারতীয় দল না নেয় তাহলে সেটা আখেরে ভারতেরই ক্ষতি বলে অনেকে মনে করছেন।

 

সম্পর্কিত খবর