সাবধান, আর মাত্র কিছুক্ষণ! শুরু হবে দমকা হাওয়ার সাথে ঝেঁপে বৃষ্টি, এই জেলাগুলিতে জারি ‘হাই অ্যালার্ট’

বাংলাহান্ট ডেস্ক : দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায় আজ ভোর থেকে শুরু হয়েছে বৃষ্টিপাত। দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন অংশে দেখা গিয়েছে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি। এমনকি বৃষ্টির প্রভাব পড়েছে শহর কলকাতাতেও। আজ সকাল থেকেই মুখ ভার তিলোত্তমার আকাশের। কয়েকদিনের একটানা বৃষ্টিতে পশ্চিমবঙ্গের একাধিক জেলা জলমগ্ন হয়ে পড়েছে।

একের পর এক নিম্নচাপের প্রভাবে গোটা বঙ্গ জুড়ে কয়েক দিন ধরে লাগাতার বৃষ্টিপাত চলছে। পুজোর আগে সপ্তাহে কাজের দিনে এমন বৃষ্টিপাতে বেজায় সমস্যায় পড়েছেন প্রত্যেকে। আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর জানাচ্ছে এখনই বৃষ্টি কমার সম্ভাবনা নেই। আগামী কয়েকদিন জারি থাকবে বৃষ্টিপাত।

আরোও পড়ুন : রেশন কার্ড থাকলেই পুজোর আগে সুখবর! এইসব গ্রাহকদের জন্য মিলবে অতিরিক্ত সামগ্রী

অন্যদিকে, মঙ্গলবার দুপুর ও বিকেলের মধ্যে দক্ষিণবঙ্গে একাধিক জেলায় রয়েছে ভারী বৃষ্টিপাতের সতর্কতা। চরম সতর্কতা জারি করা হয়েছে একাধিক জেলার জন্য। ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে বিভিন্ন জায়গায়। আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে আজ বিক্ষিপ্তভাবে ভারী বৃষ্টিপাত হবে দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম এবং পশ্চিম মেদিনীপুরে।

আরোও পড়ুন : ৭ টাকা জমিয়ে মাসে পান ৫০০০ হাজার টাকা! বিপুল লাভ দিচ্ছে কেন্দ্রের এই স্কিম, এভাবে করুন বিনিয়োগ

পাশাপাশি হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত চলবে উত্তর ২৪ পরগনা, পুরুলিয়া, কলকাতা, হাওড়া, কলকাতা, হুগলি পশ্চিম বর্ধমান, পূর্ব বর্ধমান, বাঁকুড়া, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ এবং নদিয়ায়। বৃষ্টির সাথে এদিন বইতে পারে ঝোড়ো হাওয়াও। উত্তর বঙ্গোপসাগরে ঘন্টায় ৪৫ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়ার ফলে সমুদ্র উত্তাল হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

Weather,South Bengal,West Bengal,Bangla,Bengali,Bengali News,Bangla Khobor,Bengali Khobor

এই কারণে মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে মাছ ধরতে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। উত্তরবঙ্গের তিনটি জেলা জলপাইগুড়ি, কালিম্পং এবং আলিপুরদুয়ারে চরম আবহাওয়া থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। হাওয়া অফিস এই তিন জেলায় জারি করেছে কমলা সতর্কতা।উত্তরবঙ্গের বাকি জেলাগুলির জন্য জারি রয়েছে হলুদ সতর্কতা।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর