শেষ পর্বে মারা গেল গুনগুন! ইচ্ছা করে এমন পরিণতি হল, লেখিকা আর তৃণা সাহাকে তুলোধনা দর্শকদের

বাংলাহান্ট ডেস্ক: দেখতে দেখতে দু বছর পূর্ণ করে ফেলল ‘খড়কুটো’ (Khorkuto)। স্টার জলসার সবথেকে পুরনোদের মধ‍্যে অন‍্যতম সিরিয়ালের এবার বিদায় নেওয়ার পালা। অনেকদিন ধরেই গুঞ্জন শোনা গেলেও জল্পনায় মান‍্যতা দিতে চাননি গুনগুন ওরফে তৃণা সাহা (Trina Saha)। তবে এবার আর তিনিও লুকিয়ে রাখেননি খারাপ খবরটা। দু বছর পূর্ণ করে চলতি সপ্তাহেই বিদায় নিচ্ছে খড়কুটো।

   

গুনগুন আর সৌজন‍্য, টেলিপাড়ার জনপ্রিয় জুটিগুলির মধ‍্যে অন‍্যতম। অনুরাগীদের কাছে তারা ‘সৌগুন’। একে অপরকে প্রথমে পছন্দ না করলেও পরে গুনগুন সৌজন‍্যই হয়ে ওঠে একে অপরের সবথেকে কাছের মানুষ। সমস্ত বিপদের আঁচ থেকে গুনগুনকে রক্ষা করে এসেছে বাবিন।


গুনগুন চরিত্রটি নিয়ে দর্শকদের মধ‍্যেও দোলাচল এসেছে। কেউ কেউ অভিযোগ করেছেন, গুনগুন অত‍্যন্ত ন‍্যাকা একটি মেয়ে। আবার অনেকের দাবি, গুনগুনের এই সরলতাটাই তো সিরিয়ালের ইউএসপি‌। যৌথ পরিবারের প্রতিটি সদস‍্যই প্রিয় হয়ে উঠেছিল দর্শকদের কাছে। বহু ফ‍্যানপেজ, অসংখ‍্য অনুরাগী রেখে শেষমেষ বিদায় নিচ্ছে খড়কুটো।

সিরিয়াল শেষের গুঞ্জন নিয়ে আগেও মুখ খুলেছিলেন তৃণা। ইদানিং গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল, মুখ‍্য চরিত্র গুনগুনের মৃত‍্যুর সঙ্গে সঙ্গেই নাকি শেষ হয়ে যাবে এই সিরিয়াল। অসুস্থ গুঞ্জনের বেঁচে থাকার সম্ভাবনা বেশ কম। দর্শকরা তাই বেশ চিন্তায় আছে।

বেশ কিছুদিন ধরেই দুপুরের স্লটে সম্প্রচারিত হচ্ছে খড়কুটো। টিআরপি কমে যেতেই এই বদল। মাঝে শোনা গিয়েছিল, ৫ ই অগাস্টই নাকি শেষ হয়ে যাবে একসময়কার এই জনপ্রিয় সিরিয়াল। তৃণা তখন বলেছিলেন, অনেকদিন ধরেই শুনছেন শেষ হয়ে যাবে। এখনো তো হল না। কম হলেও কিছু সংখ‍্যক বিশ্বাসী দর্শক এখনো রয়েছে এই সিরিয়ালের। তারা ভালবাসে সৌগুনকে। তৃণা এও জানান, তাঁর কাছে সিরিয়াল শেষ হওয়ার কোনো খবরই নেই তাঁর কাছে।


তবে এবারে সিরিয়াল শেষের খবর স্বীকার করেছেন গুনগুন। তিনি বলেন, শেষ পর্বে এসে এখন আর কারোর কাঁদার জন‍্য গ্লিসারিন লাগছে না। আপনা থেকেই চোখে জল আসছে। এত প্রিয় চরিত্র গুনগুনের মৃত‍্যু দিয়েই শেষ হয়ে যাবে খড়কুটো।

অনুরাগীদের মন খারাপের মধ‍্যেও তৃণা আর্জি জানিয়েছেন, শেষ পর্যন্ত যেন সবাই সিরিয়ালটা দেখেন। কারণ একটা বড় চমক রয়েছে শেষ পর্বে। যদিও অনুরাগীরা ক্ষোভ উগরে দিচ্ছেন লেখিকার উপরে। ইতিবাচক একটা সিরিয়ালকে ইচ্ছা করে এই পরিণতি দেওয়া হল, ক্ষোভ দর্শকদের।