‘আর নাম খুঁজে পেলে না?’! ‘মমতা’ নামটা একেবারে নাপছন্দ! ৬৯ বছরে এসে আক্ষেপ তৃণমূল নেত্রীর!

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী, দাপুটে রাজনীতিক। বাংলার তো বটেই, এদেশের পোড় খাওয়া রাজনীতিবিদদের মধ্যে একজন তিনি। তাঁর নামে রীতিমতো কাঁপে বিরোধীরা! এবার সেই মমতাই বললেন, নিজের নামটাই নাকি পছন্দ নয় তাঁর। সম্প্রতি ভোট প্রচারে বেরিয়ে এমনটা বলেন তিনি।

লোকসভা ভোটের আবহে গোটা রাজ্য ঘুরছেন তৃণমূল (Trinamool Congress) নেত্রী। একাধিক জেলায় সভা করছেন তিনি। মঙ্গলবার যেমন শ্রীরামপুর এবং বনগাঁয় দলীয় প্রার্থীদের সমর্থনে সভা করেন মমতা। সেই দুই সভা থেকেই জানালেন, নিজের নামটাই একেবারে নাপসন্দ তাঁর! কেন এই নামটাই রাখা হল? বহুবার নাকি বাড়ির লোককে এই প্রশ্ন করেছেন তিনি।

গতকাল সভায় বক্তব্য রাখার সময় বিজেপিকে একহাত নেন তৃণমূল নেত্রী। গেরুয়া শিবিরের একটি বিজ্ঞাপন নিয়ে সুর চড়াতে দেখা যায় তাঁকে। মময়া বলেন, ‘বিজ্ঞাপন দিচ্ছে। সেখানে আবার আমার নামে একজন মেয়েকে দাঁড় করিয়ে দিয়েছে। মাকে বলছে, চলো চলো বিজেপিকে ভোট দিয়ে আসি। কেন? কারণ মোদী জল দিয়েছেন! আর নামটা নাকি আমার! একটু লজ্জাও করে না!’

আরও পড়ুনঃ ভোট প্রচারে বেরিয়ে বিয়ের প্রস্তাব পেলেন দেবাংশু! শুনেই গদগদ হয়ে তৃণমূল প্রার্থী বললেন, একটু…

এরপরেই মুখ্যমন্ত্রী বলেন, তিনি নিজের নামটাই বিশেষ পছন্দ করেন না। মমতার কথায়, ‘আমি আমার নিজের নামটাই পছন্দ করি না। বাড়িতে বহুবার বলেছি, আর কোনও নাম খুঁজে পেলে না?’ নিজের নাম নিয়ে বলার পাশাপাশি গতকালের সভা থেকে বিরোধীদের মানহানির মামলা করার হুঁশিয়ারিও দেন মুখ্যমন্ত্রী।

ভোটের আবহে তৃণমূলকে একাধিকবার ‘চোর’ বলে সুর চড়িয়েছে বিরোধীরা। মমতা স্পষ্ট জানান, এবার থেকে আর এমনটা বরদাস্ত করা হবে না। তৃণমূল সুপ্রিমো বলেন, ‘রোজ বলছে যে তৃণমূল কংগ্রেস চোর! কোথায় চুরি করেছে? কোথায় প্রমাণ? হাওয়া তুলে দিলেই হল! আমি মানহানির মামলা করতে যাচ্ছি। প্রত্যেকদিন সংবাদমাধ্যমে উল্টোপাল্টা কথা বলা! এবার আমি নিজে মামলা করতে যাচ্ছি’।

Mamata Banerjee says she will file defamation case from Serampore rally

মমতার সংযোজন, ‘এবার  আর আমি ছাড়ার পাত্রী নই। এবার আমি ধরব, একেবারে ভালো করে আঁটোসাঁটো করে ধরব। আপনার নামে কোনও তথ্য নেই, প্রমাণ নেই। চোর বানিয়ে দেব! জীবনে কারোর থেকে এক কাপ চা অবধি খাইনি’।

Sneha Paul
Sneha Paul

স্নেহা পাল, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তরের পর সাংবাদিকতা শুরু। বিগত প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর