ভারতরাজনীতিআন্তর্জাতিক

দুবাইয়ে থেকে ভারতের বিরুদ্ধে কোনওরকম বিক্ষোভ প্রদর্শন বরদাস্ত নয়, চরম হুঁশিয়ারি আরব প্রশাসনের

বাংলা হান্ট ডেস্ক: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সংসদে পাশ হওয়ার পর থেকেই সারা ভারতে এক শ্রেণীর নাগরিক এর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখিয়েছে। যদিও কেন্দ্রীয় সরকার কখনই বিক্ষোভকারীদের বাধা দান করেনি। কিন্তু সম্প্রতি দুবাইয়ে সিএএ-র [CAA] বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন কিছু ব্যক্তি। তবে দুবাইয়ে থেকে ভারতের বিরুদ্ধে এই ধরণের বিক্ষোভ কোনও ভাবেই বরদাস্ত করা হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিল সংযুক্ত আরব আমিরশাহি [UAE] প্রশাসন। সরকার সাফ ভাবে জানিয়ে দিয়েছে, সিএএ ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। তা নিয়ে কোনও বিক্ষোভ প্রদর্শন আরবের মাটিতে করা চলবে না।

গত বছরের ডিসেম্বর মাস থেকে সারা দেশে এক শ্রেণীর মানুষ এই সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু করেন। দিল্লির শাহিনবাগে এক মাসের বেশি সময় ধরে বহু মানুষ অবস্থান বিক্ষোভ করেন। সেই নিয়ে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি আইন সমর্থনকারি ও বিক্ষোভকারীদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে যা অচিরেই সাম্প্রদায়িক রূপ নিয়ে নেয়। সেই ঘটনায় ৫৩ জনের মৃত্যু হয়, আহত হন ২০০ জনের বেশি মানুষ। দিল্লির এই সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষে উস্কানি দেওয়ার জন্য জেএনইউ-র ছাত্রনেতা উমর খালিদ, প্রাক্তন আপ কাউন্সিলর তাহির হুসেন সহ একাধিক অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়। সেই ঘটনার তদন্ত এখনও চলছে।

সেই ঘটনার মতোই সম্প্রতি দুবাইয়ের রাস্তাতেও এই সিএএ বিরোধী বিক্ষোভ করা হয়। বিক্ষোভকারীরা সকলেই ভারতীয় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বলে জানা গিয়েছে। তবে এই ঘটনাকে ভাল ভাবে নেয়নি দুবাই প্রশাসন। মোদী সরকারের আমলে ভারতের সঙ্গে আরব আমিরশাহির সম্পর্ক খুবই মধুর। সেই সম্পর্কে যাতে শীতলতা না আসে, তাই বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে কড়া অবস্থান নিয়েছে আরব প্রশাসন। বিক্ষোভ তুলে দেওয়ার পাশাপাশি, আর যাতে এই ধরণের ভারত-বিরোধী বিক্ষোভ না করা হয়, সেই নিয়েও চরম হুঁশিয়ারি দিয়েছে আরব সরকার।

Back to top button