অপছন্দ সত্ত্বেও ভ্রু প্লাক! ভিডিও কলে মুখ দেখেই স্ত্রীকে তিন তালাক স্বামীর

বাংলা হান্ট ডেস্ক: উত্তরপ্রদেশে (Uttar Pradesh) আবারও এক অদ্ভুত ঘটনা। ভ্রু প্লাক করায় স্ত্রীকে তালাক দিল স্বামী। ঘটনাটি ঘটেছে কানপুরে (Kanpur)। জানা গিয়েছে, ওই মহিলা ভ্রু প্লাক (Eyebrows) করায় তাঁর স্বামী মহম্মদ সেলিম। সৌদি আরব থেকে তাঁকে ফোনে তিন তালাক দিয়েছেন।

এই বিষয়ে ওই মহিলা পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন। জানা গিয়েছে, ২০২২ সালের জানুয়ারি মাসে ওই দম্পতির বিয়ে হয়। গত আগস্ট মাসে তাঁর স্বামী সৌদি আরবে যান। ওই মহিলা পুলিশকে জানিয়েছেন, তাঁর স্বামী সেকেলে মানুষ। ভ্রু প্লাক (Eye Brow) করা পছন্দ করেন না। আর তা করায় রেগে গিয়েছেন তাঁর স্বামী।

   

ওই মহিলার দাবি, গত ৪ অক্টোবর তাঁর স্বামী বিদেশ থেকে ভিডিও কল (Video Call) করেছিলেন তাঁকে। সেই সময় ভ্রু প্লাক করা অবস্থায় দেখেন। এরপরই রেগে যান। বলে ওঠেন, ‘আমার আপত্তি সত্ত্বেও তুমি ভ্রু প্লাক করেছো। আমি তোমাকে এই বিয়ে থেকে মুক্তি দিলাম।’ এরপরই ভিডিও কলে তিনবার তালাক (Talaq) উচ্চারণ করেন ওই ব্যক্তি। মহিলার অভিযোগ, তারপর থেকেই আর তাঁর স্বামী ফোন তুলছেন না।

এদিকে ওই মহিলার অভিযোগ, তাঁর স্বামী বিদেশে যাওয়ার পর থেকেই পণের জন্য চাপ দিতে থাকেন শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। স্বামী এলে সব সমস্যার সমাধান হবে বলে চুপ করেছিলেন ওই মহিলা। কিন্তু এবার এই ঘটনা ঘটায় তাঁর স্বামী-সহ শ্বশুরবাড়ির পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

burqa muslim women

ঘটনায় কলোনেলগঞ্জের এসিপি নিশাঙ্ক শর্মা জানান, ওই মহিলা বাদশাহিনাকা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। যৌতুকের জন্য শ্বশুরবাড়ি বিরুদ্ধে হয়রানির অভিযোগও তোলা হয়েছে। জানা গিয়েছে, অপছন্দ সত্ত্বেও মহিলা ভ্রু প্লাক করায় তালাক দিয়েছেন স্বামী। আমরা বিষয়টি দেখছি মামলা ভিত্তিতে তদন্ত করা হবে।’

Avatar
Monojit

সম্পর্কিত খবর