fbpx
টাইমলাইনলাইফস্টাইলস্বাস্থ্য

রাতারাতি পেয়ে যান কোমল ত্বক এই ফেস মাস্ক ব্যবহার করে

বাংলাহান্ট ডেস্ক: শীতকাল প্রায় যেতে বসেছে। তবে এখনও শুষ্ক ত্বকের থেকে রেহাই মিলছে না। যাদের ত্বক এমনিতেই শুষ্ক তাদের শীতে খুব সমস্যা হয়। এমনকি তৈলাক্ত ত্বকেও থাকে এই সমস্যা। সেই কারনে স্কিন স্পেশালিস্টরা পরামর্শ দেন রাতে ত্বকের বেশি করে যত্ন নিতে। রাতে নাইট ফেস মাস্ক লাগিয়ে রাখা খুবই কার্যকর। এতে মুখের ত্বক অনেক বেশি নরমও হয়, পরের দিন অতিরিক্ত উজ্জ্বলতাও পাওয়া যায়। এখানে রইল বেশ কয়েকটি সহজ নাইট ফেস মাস্ক বানানোর কৌশল যা খুব সহজেই বানানো যাবে বাড়িতেই।

কোকোনাট ওয়েল মাস্ক- এক চামচ ভার্জিন কোকোনাট ওয়েল নিয়ে ফেসক্রিমের সঙ্গে মেশান। তারপর সেটি সারারাত মুখে মেখে থাকুন ও সকালে ভাল করে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এই মাস্ক ট্রান্সপিডারমাল ক্ষরন বন্ধ করে ও প্রদাহজনিত ট্যানিংয়ের মাত্রা ঠিক করে।

তরমুজ ফেস মাস্ক- একটি কাপে তরমুজ নিয়ে রস বের করুন। সেই রস তুলো দিয়ে চেপে চেপে সারা মুখে মাখুন। কিছুক্ষন রেখে শোওয়ার আগে ভাল করে মুখ ধুয়ে নিন। একদিন অন্তর ব্যবহার করলেই দেখতে পাবেন পরিবর্তন। তরমুজে থাকা লাইকোপিন স্কিন ড্যামেজ প্রতিরোধ করে।

হলুদ ও দুধের ফেস মাস্ক- হাফ চামচ হলুদ ও এক চামচ কাঁচা দুধ নিয়ে ভাল করে মেশান। তারপর তুলো দিয়ে সারা মুখে মেখে নিন। পরদিন সকালে উঠে ভাল করে মুখ ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে তিনদিন ব্যবহার করুন এই মাস্ক। হলুদ দুধ অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পরিপূর্ণ।

শশার ফেস মাস্ক- এককাপ শশা গ্রেট করে তার রসটা বের করুন। তুলো দিয়ে সেটা সারা মুখে মেখে নিন। সারারাত রেখে পরদিন সকালে ঠান্ডা জবে মুখ ধুয়ে নিন। শশা ত্বকের স্বাভাবিক জলের সাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে। পাশাপাশি অনেক ক্ষতিকারক টক্সিনও ধ্বংস করে শশা।

Back to top button
Close
Close