টাইমলাইনবিনোদন

‘আমি জানি তুমিই পারবে’, ‘পাঠান’ দেখে শাহরুখকে খোলা চিঠি ‘জুন আন্টি’ উষসীর

বাংলাহান্ট ডেস্ক: সিজন চেঞ্জের সময়ে ‘পাঠান’ জ্বরে ভুগছে দেশ। বক্স অফিসে একের পর এক রেকর্ড ভাঙছে শাহরুখ খানের (Shahrukh Khan) ছবি। দর্শকরা উৎফুল্ল প্রিয় কিংকে এতদিন পর পর্দায় দেখে, তাও আবার স্বমহিমায়। পাঠান দেখতে একটু দেরি হয়ে গিয়েছে অভিনেত্রী উষসী চক্রবর্তীর (Ushashi Chakraborty)। কিন্তু একজন সাচ্চা ফ্যানগার্লের মতো বাদশাকে খোলা চিঠি লিখতে ভোলেননি তিনি।

পর্দায় তিনি দুর্দান্ত খলনায়িকা জুন আন্টি হতেই পারেন। কিন্তু বাস্তবে তিনি শাহরুখের লক্ষ লক্ষ ভক্তদের মধ্যে একজন। দেরিতে হলেও পাঠান দেখতে গিয়ে শাহরুখের পোস্টারের সঙ্গে ছবি তুলতে ভোলেননি উষসী। সঙ্গে বলিউড বাদশার উদ্দেশে লিখেছেন একটি খোলা চিঠি।

shahrukh khan fan

উষসী লিখেছেন, ‘প্রিয়তম শাহরুখ, তোমার যে কোন ও ছবি হলে গিয়ে দেখতে যাওয়ার আগে আমি দারুণ সাজি। গাঢ় করে লিপ্সটিক লাগাই- কাজল পরি । নিন্দুকেরা হাসে ! ‘আরে আরে এত সাজছিস কেন? ও তোকে দেখতে পাবেনা , তুই পাবি !’ আমি কোন ও উত্তর করিনা। মৃদু হাসি। ওরা কি বুঝবে তোমার আমার রসায়ন! ওরা কি জানে দুষ্টু লোকের পিছনে দৌড়তে দৌড়তে, অপাঙ্গে , আঁখির কোন দিয়ে তুমি একবার আমার দিকে তাকাবে। তাকাবেই ।

চিরকালই এমনটাই হয়; এমনটাই হয়ে এসেছে। স্কুল পালিয়ে জয়াতে ডিডিএলজে দেখার সময় থেকেই আমি জানি, কোনও এক মুহুর্তে নায়িকাকে চুমু খেতে খেতে হোক বা দুষ্টের ফাইনাল দমনের আগে তুমি একবার আমায় দেখবেই আর আশিরনখ শিউরে উঠে ঠিক তখনই আমি আবার রাই- কিশোরী হয়ে যাব।’

পাঠান নিয়ে বিতর্ক এখনো বন্ধ হয়নি। এমনকি ছবির গল্পের যৌক্তিকতা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন। এ বিষয়ে কী মতামত উষসীর? তিনি স্পষ্ট লিখেছেন, ‘পাঠান কেমন ছবি আমি কেমন করে বলি? আমি তো সারা ছবি জুড়ে তোমাকেই দেখেছি। আমি জানি তুমি পার। তোমার প্রত্যেকটা বীরগাথা আমি যে চিরকাল বিশ্বাস করেছি- তা সে হেলিকাপ্টার থেকে এক লাফে নায়িকাকে বাঁচানো হোক বা ভেঙ্গে পড়া ট্রেন থেকে অবিশ্বাস্য দৌড় আমি জানি তুমি পার। তুমিই পারবে।

ushashi

আসলে তুমিই সেই অতীন্দ্রীয় যাকে আমি মর্মে মর্মে বিশ্বাস করি । তোমার জিত কে ছোটবেলা থেকে আমার জিত বলে ভেবে নি বলেই না তুমি আজ ও এত বেশি করে আমার। ‘আমি দাঁড়াব যেথায় বাতায়ন কোনে সে চাবে না সেথা জানি তাহা মনে – ফেলিতে নিমেষ দেখা হবে শেষ যাবে সে সূদুর পুরে। ……………তবু রাজার দুলাল যাবে গো আমার ঘরের সমুখ পথে, শুধু সে নিমেষ লাগি না করিয়া বেশ রহিব বল কি মতে? নাহ! রবি ঠাকুর দেখছি সব সিচুয়েশানের জন্যই অব্যর্থ লিখে গেছেন!’

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker