টাইমলাইনবিনোদন

হল না শেষরক্ষা, ১৫ দিন হাসপাতালে কাটিয়ে প্রয়াত জনপ্রিয় অভিনেতা বিক্রম গোখলে

বাংলাহান্ট ডেস্ক: বুধবারই হঠাৎ করে খবর এসেছিল হাসপাতালে ভর্তি প্রবীণ অভিনেতা বিক্রম গোখলে (Vikram Gokhale)। সঙ্কটজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। কিন্তু শেষরক্ষা হল না। দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকার পর লড়াইয়ে হার মানলেন বিক্রম গোখলে। হাসপাতালেই শেষ নিঃশ্বাস ত‍্যাগ করলেন তিনি। ৮২ বছর বয়স হয়েছিল তাঁর।

সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ‍্যম সূত্রে খবর, গত ১৫ দিন ধরে পুনের দীননাথ মঙ্গেশকর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন বিক্রম গোখলে। তাঁর পরিস্থিতি যথেষ্ট সঙ্কটজনক বলে খবর পাওয়া গিয়েছিল। লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল অভিনেতাকে। বুধবারই শেষ নিঃশ্বাস ত‍্যাগ করেন তিনি। হাসপাতাল সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার সকালে বলগন্ধর্ব সভাগৃহে রাখা হবে তাঁর মরদেহ। সেখানেই তাঁকে শেষ শ্রদ্ধার্ঘ জানানো হবে।

বলিউডের দীর্ঘদিনের সদস‍্য বিক্রম গোখলে। বহু জনপ্রিয় ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। ১৯৯৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত সঞ্জয় লীলা বনশালি পরিচালিত ‘হাম দিল দে চুকে সনম’ ছবিতে ঐশ্বর্য রাই বচ্চনের বাবার ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন বিক্রম।

দিল সে, ভুল ভুলাইয়া, দে দনা দন, হিচকি, নিকম্মা, মিশন মঙ্গল এর মতো একাধিক ছবিতে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। প্রবীণ অভিনেতা এর আগে জানিয়েছিলেন, বলিউডে পা রাখার সময়ে খুব জটিল পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছিলেন বিক্রম গোখলে। সে সময়ে অমিতাভ বচ্চন তাঁর দেবদূত হয়ে এসেছিলেন।

বিক্রম গোখলে জানিয়েছিলেন, চরম আর্থিক সঙ্কটের মধ‍্যে দিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। একটা মাথা গোঁজার জায়গা পর্যন্ত ছিল না তাঁর কাছে। সে সময়ে অমিতাভ নিজে মহারাষ্ট্রের তৎকালীন মুখ‍্যমন্ত্রীর কাছে চিঠি লিখেছিলেন। সরকারের তরফে বাড়ির ব‍্যবস্থা করে দেওয়া হয়েছিল বিক্রম গোখলেকে। সেই চিঠি নাকি বাঁধিয়ে রেখে দিয়েছেন অভিনেতা।

Related Articles