বিদ্যুৎ দপ্তর দিচ্ছে স্মার্ট মিটার, বসাতে না চেয়ে কর্মীদের উপর চড়াও গ্রামবাসীরা

বাংলাহান্ট ডেস্ক : বাড়িতে লাগাতে দেওয়া হবে না স্মার্ট মিটার। স্মার্ট মিটার লাগানোর প্রতিবাদে বিদ্যুৎ কর্মীদের আটকে রেখে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন গ্রামবাসীরা। ঘটনাটিকে ঘিরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ভাঙরে। রাজ্যের বিদ্যুৎ দপ্তর নতুন পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে যে তারা বাড়িতে পুরনো মিটার বদলে লাগাবে প্রিপেইড স্মার্ট মিটার।

কিন্তু বহু গ্রাহক এই স্মার্ট মিটার লাগাতে অনিচ্ছুক। স্মার্ট মিটার লাগানোকে কেন্দ্র করে তর্ক বিতর্ক লেগে যাচ্ছে গ্রামবাসী ও বিদ্যুৎ কর্মীদের মধ্যে। বৃহস্পতিবার তেমনই একটি প্রতিচ্ছবি ধরা পড়ল দক্ষিণ ২৪ পরগনার ভাঙর ২নম্বর ব্লকের মাছিভাঙ্গা এলাকায়। সূত্রের খবর বৃহস্পতিবার দুপুরে বিদ্যুৎ কর্মীরা এসে উপস্থিত হন স্মার্ট মিটার লাগানোর জন্য।

আরোও পড়ুন : কলকাতা পুলিশের কনস্টেবল নিয়োগে বড়সড় আপডেট! নির্ধারিত তারিখে হবে না পরীক্ষা, দেখুন নতুন দিন

বিদ্যুৎ কর্মীদের দেখেই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন গ্রামবাসীরা। গ্রামবাসীরা এই বিদ্যুৎ কর্মীদের বলেন যে তারা স্মার্ট মিটার লাগাবেন না। অপরদিকে বিদ্যুৎ কর্মীরা অনর ছিলেন স্মার্ট মিটার লাগানোর জন্য। এরপর দুপক্ষের মধ্যে শুরু হয় তুমুল বচসা। এরপর গ্রামবাসীরা বিদ্যুৎ কর্মীদের আটকে রেখে শুরু করেন প্রতিবাদ।

আরোও পড়ুন : ৪৪ লাখের অডি গাড়ি চালিয়ে লাল শাক বিক্রি! ভাইরাল এই বিত্তশালী কৃষকের ‘সাধারণ জীবন’

বিদ্যুৎ কর্মীদের সাথে থাকা নতুন স্মার্ট মিটারগুলি গ্রামবাসীরা রাস্তায় ফেলে ভাঙচুর করেন। এরপর গ্রামবাসীদের বিক্ষোভের শামিল হন জমি জীবিকা বাস্তুতন্ত্র ও পরিবেশ রক্ষা কমিটির সদস্যরা। অশান্তির খবর পেয়ে দ্রুত সেখানে এসে উপস্থিত হয় কাশিপুর থানার পুলিশ। এরপর গ্রামবাসীদের সাথে আলোচনা করেন তারা। পুলিশের সাথে আলোচনার পর বিক্ষোভ প্রত্যাহার করে নেন গ্রামবাসীরা।

img 20230930 184903

অনেকের বক্তব্য স্মার্ট মিটার সম্পর্কে মানুষকে ঠিক ভাবে বোঝাতে অক্ষম বিদ্যুৎ দপ্তর। আবার গ্রামবাসীদের বক্তব্য, মোবাইল রিচার্জ এর মতো সিস্টেম রয়েছে এই মিটারে। যতক্ষণ রিচার্জ থাকবে ততক্ষণ বিদ্যুৎ চলবে। কিন্তু রিচার্জ ফুরিয়ে গেলে যে কোনও সময় বন্ধ হয়ে যাবে বিদ্যুৎ পরিষেবা। গ্রামের সহজ সরল মানুষ এই ধরনের জটিলতা মেনে নিতে পারবে না।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর