সংস্কৃতে মাস্টার্স! জোটেনি চাকরি, কচুরি বেচেই সংসার চালাচ্ছে অসহায় এই বিক্রেতা

বাংলাহান্ট ডেস্ক : প্রতি দিন কত রকমের খাবারের ছবি নেটদুনিয়ায় জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। কোনওটা তার রেসিপির জন্য আবার কোনওটার শেপ খাদ্যরসিকদের মন ছুঁয়ে যায়। কিন্তু একটা খাবারের সঙ্গে যদি যিনি খাবার বানাচ্ছেন তার লড়াইয়ের গল্প মিশে যায়, তা হলে সেই ছবি তো নেটমাধ্যমে মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়।

   

এবার ফুড ব্লগার ‘Bhokkad Foody’ সৌজন্যে এক কচুরি বিক্রেতার গল্প ধরা পড়ল আমজনতার কাছে। পড়নে জিন্স প্যান্ট আর টিশার্ট, পকেটে গোঁজা আছে বাইকের চাবি, কথাবার্তাতেও বেশ স্মার্ট। সবমিলিয়ে রীতিমতো নজর কেড়েছে এই কন্যা। জানা গিয়েছে, আর্থিক অনটনের কারণে তাকে এই পেশার সঙ্গে নিজেকে যুক্ত করতে হয়েছে।

আরোও পড়ুন : প্রতীক্ষার অবসান! বুলেট ট্রেনের প্রসঙ্গে বড় সুখবর দিলেন রেলমন্ত্রী, চলছে জোরকদমে কাজ

কচুরি বিক্রেতার কথায়, “বাবা গাড়ি চালান। বাড়িতে অভাব অনটন খুব। ” তিনি আরোও জানান, সংস্কৃতে মাস্টার্স করা হলেও তিনি চান ভবিষ্যতে খাবারের ব্যবসা শুরু করতে। প্রাথমিক অবস্থায় খুব একটা বড় দোকান দিতে না পারলেও তিনি চান ছোট দোকান দিয়েই ব্যবসা শুরু করতে। মা-বাবা থেকে শুরু করে মনের মানুষ বন্ধু-বান্ধব সকলেই অবশ্য তার পাশে দাঁড়িয়েছেন।

আরোও পড়ুন : ‘জমি নিয়ে থাকলে ফেরত দিন’, সন্দেশখালি কাণ্ডে অভিষেকের কড়া বার্তা, বিরোধীরা বলছে ‘ড্যামেজ কন্ট্রোল’

এই কচুরি বিক্রেতা অবশ্য বলছেন, আশপাশের যে মানুষেরা তার দোকানে এসেছেন তারা সবাই চান, তিনি যেন সবসময় কচুরি, ঘুগনি, ডিম কষা আর চিকেন কষা বানান। এককথায় বলা যায়, এই চারটি খাবারের খুব ডিমান্ড তার দোকানে। পাশাপাশি তিনি আরোও জানান, অন্যান্য দোকানের চেয়ে তার খাবারের কোয়ালিটি, কোয়ান্টিটি খুব ভালো।

 

ভিডিওটি ফুড ব্লগার ‘Bhokkad Foody’ পোস্ট করার সাথে সাথেই বহু মানুষ লাইক, শেয়ার করেছেন। রীতিমতো কমেন্টের বন্যা বয়ে যাচ্ছে। তবে এখনও পর্যন্ত এই ভাইরাল কচুরি বিক্রেতার নাম জানা যায়নি। বহু মানুষ এই কচুরি বিক্রেতাকে বিদ্রুপ করলেও পাশে দাঁড়িয়েছেন বহু মানুষ। বাঙালির ব্যবসার কথা শুনে সাধুবাদ জানিয়েছেন অনেকেই।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর