এককালীন কড়কড়ে ২৫০০০ টাকা দিচ্ছে রাজ্য সরকার! কিভাবে করবেন আবেদন? ঝটপট দেখে নিন

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ২২ এ হোক বা ৪২ এ ! বিয়ের অনুষ্ঠানের জন্য কিছু আর্থিক সাহায্যের অবশ্যই প্রয়োজন। তবে সেই টাকা-পয়সার চিন্তা কমাতে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের রূপশ্রী প্রকল্প (Rupasree Prakalpa)। গত ১ এপ্রিল, ২০১৮ থেকে কার্যকর হয়েছে মমতা সরকারের (West Bengal Government) রূপশ্রী প্রকল্প।

   

এই প্রকল্পের মাধ্যমে প্রথমবার বিয়ের জন্য এককালীন পঁচিশ হাজার টাকা অনুদান দিয়ে থাকে রাজ্য সরকার। তবে রয়েছে শর্তও। পারিবারিক আয় বছরে দেড় লক্ষ টাকার কম হলে তবেই মেলে এই আর্থিক সাহায্য।

আর কোন কোন শর্ত মানলে আপনিও পেতে পারেন এই প্রকল্পের সুবিধা? জেনে নিন

এই প্রকল্পে আবেদনের জন্য মেয়ের বয়স অবশ্যই ১৮ বছর হতে হবে। অবিবাহিতা মেয়ে প্রথম বিয়ের জন্যই কেবলমাত্র এই প্রকল্পে আবেদন করতে পারবেন। ওদিকে পাত্রের বয়স হতে হবে নূন্যতম ২১ বছর। আবেদনকারীকে জন্মসূত্রে পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা হতে হবে অথবা গত ৫ বছর বাংলায় বসবাস করতে হবে, অথবা তার বাবা-মাকে এ রাজ্যের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে। আবেদনকারীর নিজের নামে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে এই প্রকল্পে আবেদন করার জন্য।

আরও পড়ুন: মমতার ভাইপোর বিয়ের অনুষ্ঠানে মোতায়েন চিকিৎসক-নার্সদের দেওয়া হচ্ছে ‘মিড-ডে মিল’! অভিযোগ শুভেন্দুর

আবেদন করতে যে সকল নথিপত্র প্রয়োজন

১) পারিবারিক আয়ের প্রমাণপত্র

২) আবেদনকারীর বয়সের প্রমাণপত্র (জন্মের শংসাপত্র বা ভোটার কার্ড বা প্যান কার্ড বা মাধ্যমিকের অ্যাডমিট কার্ড বা আধার কার্ড বা সমতুল নথি), পাত্রের বয়সের প্রমাণপত্র

৩) আবেদনকারীর বৈবাহিক অবস্থার প্রমাণ হিসেবে স্বঘোষণা পত্র।

৪) আবেদনকারীর রঙিন পাশপোর্ট সাইজ ফটো, পাত্রের রঙিন পাশপোর্ট সাইজ ফটো

৫) প্রস্তাবিত বিয়ের প্রমাণপত্র

৬) ব্যাঙ্ক পাশবইয়ের কপি ( আই এফ এস কোড, এম সি আই কোড ইত্যাদি প্রয়োজনীয় নথি )

mamata banerjee rupashree

এই সমস্ত শর্ত ঠিকঠাক মানলে উপযুক্ত কাগজপত্র নিয়ে পৌঁছে জেতে হবে স্থানীয় বিডিও/ এসডিও অথবা পুর কমিশনারের অফিসে। সেখানেই আবেদনপত্র জমা করতে হবে। বিয়ের ১/২ মাস আগে এই আবেদন করা যাবে। টাকা মিলবে বিয়ের তারিখের কমপক্ষে চার/ পাঁচদিন আগে।