fbpx
খেলাটাইমলাইনফুটবল

করোনা আক্রান্ত দিনগুলির কথা মনে পড়লে এখনো ভয়ে আতঁকে উঠি: পাওলো দিবালা।

এই মুহূর্তে করোনা ভাইরাসের থাবায় ইতালি হয়ে উঠেছে মৃত্যুপুরি। করোনার আক্রান্ত হয়ে একের পর এক মৃত্যু ঘটছে ইতালিতে। আর এই মারন ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন ইতালির ফুটবল ক্লাব জুভেন্টাসের তারকা আর্জেন্টিয়ান ফুটবলার পাওলো দিবালা। পাওলো দিবালা একাই নয় তার সাথে এই মারন ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন তার গার্লফ্রেন্ড আরিয়ানাও। প্রথমে এই খবর প্রকাশ্যে আনতে চাইনি জুভেন্টাস কিন্তু পরে জানাজানি হয়ে যায়। তারপর থেকে শুরু হয় এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে বেঁচে উঠার লড়াই। এই মুহূর্তে পাওলো দিবালা এবং তার গার্লফ্রেন্ড আরিয়ানা দুজনেই সেরে উঠেছেন। কিন্তু দিবালা জানিয়েছেন সেই ভয়ঙ্কর দিনগুলির কথা মনে পড়লে এখনো ভয়ে আতকে উঠেন তিনি।

করোনা থেকে সেরে উঠে জুভেন্টাসের একটি টিভি চ্যানেলে এক সাক্ষাৎকারে দিবালা জানিয়েছেন, এখন একটু ভালো আছি, তবে কয়েক দিন আগে পর্যন্ত খুব কষ্ট পেয়েছি। নিজের শরীর ঠিক মতো নাড়াচারা করতে পারতাম না, কয়েক মিনিট পর পরই শরীর ক্লান্ত হয়ে পড়তো। দিবালা জানিয়েছেন প্রথম কয়েক দিন কিছুই বুঝতে পারি নি, কিন্তু 14 থেকে 15 দিন কেটে যাওয়ার পর শরীরে অসম্ভব কষ্ট হতে শুরু করে, পুরো শরীরে অসহ্য ব্যাথা হতে থাকে। হা করে নিঃশ্বাস নিলেও ঠিকমতো নিঃশ্বাস নিতে পারতাম না।

দিবালা জানিয়েছেন করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর আমার শুধু শেষ গোলটির কথা বারবার মনে পড়তো আর ভাবতাম আবার কবে মাঠে ফিরতে পারবো। একই দিনে আমার বান্ধবীর টেষ্টও পজিটিভ পাওয়ায় খুবই ভেঙ্গে পড়েছিলাম, তবে এখন দুজনেই সুস্থ হয়ে উঠেছি।

Back to top button
Close
Close