মাসিক ১ লাখ পেনশন, তার উপর…. কেন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে বেতন নেন না খোলসা করলেন মমতা

   

বাংলাহান্ট ডেস্ক : রাজ্য বিধানসভার অধিবেশন বৃহস্পতিবার বেশ ঘটনা প্রবাহের মধ্যে দিয়ে অতিক্রান্ত হয়েছে। আজ রাজ্য বিধানসভায় পাস হয় বাংলা দিবস ও বাংলার রাজ্য সংগীতের প্রস্তাব। অন্যদিকে, পুজোর আগে রাজ্যের বিধায়ক-মন্ত্রীদের বেতন বৃদ্ধির ঘোষণাও করেন মুখ্যমন্ত্রী।

একই সাথে মুখ্যমন্ত্রী আরো জানান আগের মতই তিনি বিধায়ক-মন্ত্রী হিসেবে বেতন নেবেন না।মুখ্যমন্ত্রীর একটি ঘনিষ্ঠ সূত্র দাবি করছে, বিধানসভার অধিবেশনের পর নিজের ঘরে মুখ্যমন্ত্রী ঘরোয়া আলাপচারিতায় বলেছেন, প্রাক্তন সাংসদ হিসেবে মাসিক ১ লক্ষ টাকা পেনশন পান তিনি।

আরোও পড়ুন : মহাবীরের নামে তৈরি করেছি বর্ধমান জেলা, জৈন ধর্মের অনুষ্ঠানে মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রীর

এছাড়াও বেতন পান বিধায়ক হিসেবে। কিন্তু তিনি গ্রহণ করেন না সেই বেতন। বই বিক্রির স্বত্ব বাবদ যে টাকা তিনি পান, তাতেই তাঁর ভালো মতো চলে যায়। বিধানসভায় আজ মুখ্যমন্ত্রী বলেন, গোটা দেশে আমাদের রাজ্যের বিধায়করা সবথেকে কম বেতন পান। তাই সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সব বিধায়কদের বেতন বৃদ্ধি করার। 

আরোও পড়ুন : ”আমাদের ভাতা নয়, ওদের বেতন বাড়ান” বিধায়কদের ৪০ হাজার বেতন বাড়তেই গর্জে উঠলেন শুভেন্দু

প্রধানত তিনটি স্তরে বেতন বৃদ্ধি হয়েছে বিধায়ক-মন্ত্রীদের। মোট ভাতা সহ বিধায়কদের বেতন ছিল ৮১০০০ টাকা। তা বৃদ্ধি পেয়ে ১,২১,০০০ টাকা হয়েছে। মোট ভাতা সহ প্রতিমন্ত্রীরা বেতন পেতেন ১,০৯,৯০০ টাকা। সেটি বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ১,৪৯,৯০০ টাকা। মোট ভাতা সহ পূর্ণ মন্ত্রীদের বেতন ১,১০,০০০ টাকা থেকে বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ১,৫০,০০০ টাকা।

new project 2023 09 07t191435.651

রাজ্য বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় এর মাঝে বলে ওঠেন, “আপনার মহানুভবতা যে আপনি বেতন নেন না। তবে আপনার ক্ষেত্রেও সংশোধনটা হলে ভালো হত। খাতায় কলমে অন্তত।” এরপর মুখ্যমন্ত্রী (Mamata Banerjee) হাত তুলে নমস্কার করে সেই প্রস্তাব খারিজ করে দেন।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর