এবার তাণ্ডব চালাবে শৈত্যপ্রবাহ! চরম সতর্কতা দক্ষিণবঙ্গের ৫ জেলায়: আবহাওয়ার খবর

বাংলা হান্ট ডেস্ক: হাড় কাঁপানো শীতে জুবুথুবু রাজ্যের মানুষ। পৌষ সংক্রান্তিতে তাপমাত্রার বিরাট পতন। জারি হল শৈত্যপ্রবাহের সতর্কতাও৷ ঘন কুয়াশার জন্য সতর্কতা জারি হল উত্তরবঙ্গের অধিকাংশ জেলায়। গত দুদিন থেকেই জমিয়ে শীত (Winter) পড়েছে রাজ্যে। এরই মধ্যে রয়েছে বৃষ্টির সম্ভাবনাও।

   

আবহাওয়া দপ্তর (Alipore Weather Office) সূত্রে খবর, আজ পুরুলিয়া, পশ্চিম বর্ধমান এবং বীরভূমের একাংশে শৈত্যপ্রবাহ চলবে। কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে একধাক্কায় ৫ ডিগ্রি মত কমেছে তাপমাত্রা। শুরু হয়ে গিয়েছে শীতের দ্বিতীয় ইনিংস। তবে খুব বেশি দিন তা জারি থাকবে কিনা সেই নিয়ে ধন্দ। আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, ২-৩ দিন পরই বদলে যাবে আবহাওয়া।

আবহাওয়া অফিসের পূর্বাভাস, আগামী মঙ্গলবার থেকেই দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলির আকাশ মেঘলা থাকবে, যার জেরে ফের কিছুটা বাড়বে তাপমাত্রা৷ বর্তমানে অবাধে উত্তুরে হাওয়া ঢুকছে রাজ্যে। আর তাতেই কমেছে তাপমাত্রা। আগামী দুদিনে পশ্চিমের জেলা গুলিতে ১০ ডিগ্রির নীচে তাপমাত্রা নামার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে বুধবার থেকেই বৃষ্টির হানা।

আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, মঙ্গলবার দক্ষিণ চব্বিশ পরগণা এবং পূর্ব মেদিনীপুরে বৃষ্টির হতে পারে৷ এরপর বুধবার দুই চব্বিশ পরগণা, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, এবং নদিয়া জেলায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। এরপর বৃহস্পতিবার দক্ষিণ বঙ্গের প্রায় সব জেলাতেই বৃষ্টি হতে পারে এমনটাই জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর।

Cyclone created in the Bay of Bengal in the new year

আরও পড়ুন: আজকের রাশিফল ১৪ জানুয়ারি, টাকার বন্যায় ভাসবে এই চার রাশি

পশ্চিম হিমালয়ান অঞ্চল থেকে রাজ্যের দিকে এগিয়ে আসতে চলেছে পশ্চিমি ঝঞ্ঝা৷ বঙ্গোপসাগর থেকে রাজ্যে জলীয় বাষ্প ঢুকতে শুরু করবে৷ এর জেরে বৃষ্টির সম্ভাবনা রাজ্যে। ওদিকে উত্তরবঙ্গের, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর, জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার ও কোচবিহারে ঘন কুয়াশা থাকতে পারে। জারি হয়েছে সতর্কতা। ১৫ ও ১৬ তারিখ দার্জিলিঙে বৃষ্টিপাত হতে পারে।