এবার আদানি-আম্বানি-টাটাকে টক্কর দিতে মাঠে নামছে Wipro, বড় পদক্ষেপ কোম্পানির

বাংলাহান্ট ডেস্ক: আদানি, আম্বানি এবং টাটাকে তাদেরই ক্ষেত্রে টেক্কা দিতে কোমর বেঁধে নামতে চলেছে উইপ্রো (Wipro)। তারা দেশের অন্যতম বড় তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা। এ বার তথ্যপ্রযুক্তি ছাড়াও আরও একটি ক্ষেত্রে পা রাখতে চলেছে তারা। কিন্তু এই সেক্টরে আম্বানি, আদানি এবং টাটার দৌরাত্ম্য রয়েছে। তাই উইপ্রো এখানে নতুন ব্যবসা শুরু করে কতটা লাভ করতে পারবে, তা সময়েই বলবে। 

   

উইপ্রো জানিয়েছে, তাদের ভোগ্যপণ্য সংস্থা উইপ্রো কনজিউমার কেয়ার অ্যান্ড লাইটিং প্যাকেটজাত খাবারের বাজারে পা রাখতে চলেছে। কিন্তু এই বাজারে ইতিমধ্যেই রমরমা রয়েছে আম্বানি, আদানি এবং টাটার। যদিও সে সবের তোয়াক্কা না করে এই বাজারে এই তিন বড় ব্যবসায়ীর প্রতিষ্ঠানকে টেক্কা দিতে চাইছে আজিম প্রেমজির সংস্থা। ইতিমধ্যেই সে দিকে জোরকদমে কাজ করা শুরু করেছে তারা। 

wipro consumer care products

সম্প্রতি কেরলের প্যাকেটজাত খাবারের ব্র্যান্ড ব্রাহ্মণকে অধিগ্রহণের কথা ঘোষণা করা হয়েছে উইপ্রোর তরফে। এই ব্র্যান্ডটি কেরলে মশলার মিক্স এবং চটজলদি রান্না করার পণ্য বিক্রি করে। উইপ্রোর এই সিদ্ধান্তের ফলে এই সেক্টরে আগামী দিনে ব্যাপক দামের লড়াই দেখা যাবে বলে মত বিশেষজ্ঞদের। তবে ঠিক কত টাকায় ব্রাহ্মণকে অধিগ্রহণ করা হয়েছে তা এখনও প্রকাশ করেনি তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাটি। যদিও তারা জানিয়েছে, গোটা প্রক্রিয়াটিই নগদ টাকায় হয়েছে।

ajim premji

জানা গিয়েছে, ব্রাহ্মণের পণ্যের চাহিদা দেশ ছাড়িয়ে বিদেশেও রয়েছে। ১৯৮৭ সালে এই সংস্থা চালু হয়েছিল। সেই সময় এটি প্রাতরাশ, মশলা, আচার জাতীয় পণ্য বিক্রি করত। আমেরিকা এবং ব্রিটেনের মতো দেশেও এই ব্র্যান্ডটির পণ্যের চাহিদা রয়েছে। নিজেদের ক্ষেত্রে দক্ষিণ ভারতে তারাই সর্বসেরা ব্র্যান্ড। ভারতের প্যাকেটজাত খাবারের ইন্ডাস্ট্রি খুব তাড়াতাড়িই বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানে এই সেক্টরের মোট মূল্য ৫ লক্ষ কোটি টাকা। উইপ্রো এই বাজারকেই তাদের নাগালে পেতে চাইছে উল্লেখ্য, ২০২২ সালে নিরাপারাকে অধিগ্রহণ করেছিল উইপ্রো। 

এ বার ব্রাহ্মণকে অধিগ্রহণ করে এই বাজারে নিজেদের শক্তিবৃদ্ধি করল আজিম প্রেমজির উইপ্রো। প্রসঙ্গত, উইপ্রো কনজিউমার কেয়ার সাবান, পাউডার এবং ব্যক্তিগত এবং হোম কেয়ার হাইজিন পণ্য বিক্রি কজরে। সন্তুর, ইয়ার্ডলির মতো ব্র্যান্ডগুলি উইপ্রোর এই সংস্থার অধীনেই রয়েছে। এ বার তারা খাবারে সেক্টরেও বড় কিছু করার জন্য পা বাড়িয়েছে। যদিও তাদের সরাসরি টক্কর দিতে হবে আদানি উইলমার, রিলায়্যান্স রিটেল এবং টাটা কনজিউমার লিমিটেডের মতো বৃহৎ সংস্থার সঙ্গে।