টাইমলাইনবিনোদনরাজনীতি

নুসরতের থেকে নেবেন না রাজনৈতিক টিপস, সাফ জানিয়ে দিলেন যশ দাশগুপ্ত

বাংলাহান্ট ডেস্ক: নুসরত জাহানের (nusrat jahan) সঙ্গে নতুন সম্পর্কের গুঞ্জন যখন তুঙ্গে তখনি সবাইকে জোর চমকে দিয়ে রাজনীতিতে (politics) যোগ দিলেন যশ দাশগুপ্ত (yash dasgupta)। তাও আবার তৃণমূল সাংসদ নুসরতের বিরোধী পার্টি বিজেপিতে (bjp)। যদিও যশের বক্তব‍্য, তিনি ও নুসরত অভিনয় ইন্ডাস্ট্রির সূত্রে বন্ধুত্ব। তাই রাজনৈতিক মত পার্থক‍্য দুজনের বন্ধুত্বে আঘাত হানবে না।

অথচ এই মন্তব‍্যের পরেই সম্প্রতি নুসরতকে নিয়ে ফের এক বিষ্ফোরক মন্তব‍্য করেছেন যশ। রাজনীতির জগতে নুসরত তাঁর তুলনায় অভিজ্ঞ একথা অস্বীকার করার জায়গা নেই। তাহলে কি ঘনিষ্ঠ ‘বন্ধু’র কাছে রাজনৈতিক টিপস নেবেন যশ? উত্তরে অভিনেতার সাফ উত্তর, না।


সম্প্রতি এক সংবাদ সংস্থার সঙ্গে সাক্ষাৎকারে যশ বলেন, শুধু নুসরত বা মিমি নয় দেবও তাঁকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। কিন্তু রাজনৈতিক টিপস কারোর কাছ থেকেই নেবেন না তিনি। যে দলে তিনি ঢুকেছেন তার থেকে বড় রাজনৈতিক টিপস আর কেউই দিতে পারবে না বলেও মন্তব‍্য করেন যশ।

এখানেই না থেমে তিনি আরো বলেন, “টিপসে বিশ্বাস করে কি হবে? যে ফিল্ডের কথা হচ্ছে সেখানে টিপস তো অ্যান্টি হয়ে যেতে পারে। দুটো টিম যদি আলাদা হয়, মাঠের বাইরে তোমরা যতই ভাল বন্ধু হও তুমি যদি বিরোধী টিমের থেকে টিপস নিতে যাও তাহলে তো তোমার টিম হেরে যাবে।”

বিজেপিতে যোগ দিয়েই সক্রিয় রাজনীতিতে নেমে পড়েছেন যশ। সম্প্রতি অমিত শাহ কলকাতায় ফিরতেই তাঁর সঙ্গে গিয়ে সাক্ষাৎ করেছেন। বিজেপি যে যুবদের কতটা সুযোগ দেয় নিজেদের মতো কাজ করার সেই বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা হয়েছে বলে জানান তিনি। অভিনয় তো করবেনই, কিন্তু এখন থেকে রাজনীতিটাই তাঁর মূল ফোকাস হতে চলেছে, এমনটাই বক্তব‍্য যশ দাশগুপ্তের।

তবে তো আগামী বিধানসভা নির্বাচনে দলের হয়ে ভোটেও দাঁড়াতে পারেন তিনি? উত্তরে জল্পনা একেবারে না উড়িয়ে যশ বলেন, ভোটে যদি জেতেন তবে এটা নিশ্চিত করবেন তাঁর এলাকার মানুষের মনে যেন তাঁর প্রতি কোনো ক্ষোভ না থাকে। কেউ যেন এমনটা বলার সুযোগ না পায় যে ভোটে জেতার পরেই এই তারকাদের আর দেখা যায় না।

Related Articles

Back to top button