‘নির্বাচন নিয়ে যাঁরা বড় বড় কথা বলেন, তাঁরা জানেন উত্তরপ্রদেশ ও পশ্চিমবঙ্গে কিভাবে ভোট হয়?’ : যোগি আদিত্যনাথ

বাংলা হান্ট ডেস্ক : ফের বাংলার প্রসঙ্গ টেনে মমতার সরকারকে (Mamata Banerjee) তুলোধোনা করলেন যোগি আদিত্যনাথ (Yogi Aditya Nath)। রাজ্যে পঞ্চায়েত নির্বাচনে হিংসা যাঁরা বড় বড় কথা বলেন, তাঁরা দেখুন, উত্তরপ্রদেশ (Uttarpradesh) ও বাংলায় কীভাবে ভোট হয়’, সরাসরি তৃণমূল কংগ্রেসকে নিশানা করলেন যোগি আদিত্যনাথ। এরপরই ভিডিও ট্যুইট করে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানালেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)।

একটি বেসরকারি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে যোগি আদিত্যনাথ বলেন, ‘আমি সাড়ে ৬ বছরেরও বেশি সময় ধরে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী। ২০১৭ সালে থেকে উত্তরপ্রদেশের কোনও অশান্তি তো হয়নি। যাঁরা বড় বড় কথা বলেন, তাঁরা দেখুন, উত্তরপ্রদেশ ও বাংলায় কীভাবে ভোট হয়। ওরা গোটা দেশকে পশ্চিমবঙ্গ বানাতে চায়’? তাঁর আরও দাবি, ‘কিছু লোক ক্ষমতা এসে, পুরো ব্যবস্থাটাকে নিজেদের আয়ত্তে আনতে চাইছে। যেটা আমরা পশ্চিমবঙ্গে দেখলাম। এসব নিয়ে তো কেউ কোনও কথা বলে না’।

যোগির এমন মন্তব্যের পর কী বলছে তৃণমূল? দলের সাংসদ শান্তনু সেন এই প্রসঙ্গে বলেন, ‘যোগি আদিত্যনাথকে মনে করিয়ে দিই, ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ড ব্যুরোর তথ্য অনুযায়ী, নারী নির্যাতন, বধু নির্যাতন, শিশু পাচার, নারী পাচার, সেই সমস্ত ঘটনায় শীর্ষে যে ক’টা রাজ্য রয়েছে, তার মধ্যে উত্তরপ্রদেশও রয়েছে। সেখানে তো আবার বিজেপি ডবল ইঞ্জিন সরকার!উত্তরপ্রদেশের হাথরাস, উন্নাওয়ের ঘটনা এখনও দগদগে ঘায়ের মতো মনে পড়ছে। পুলিসের এনকাউন্টারের নামে দুষ্কৃতীদের মেরে দেওয়া, সবথেকে বেশি উত্তরপ্রদেশে। লক-আপে মৃত্যু সবথেকে বেশি উত্তরপ্রদেশে’।

Untitled design 62 1

তৃণমূল সাংসদ আরও বলেন, ‘যোগি আদিত্যনাথকে বলব, প্রকৃত অর্থে যদি রাজ্যের জন্য ভালো কিছু করতে চান, তাহলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে এসে ক্লাস করে যান। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রকল্পগুলি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথা বলে আপনার রাজ্যে বাস্তবায়িত করুন, তাহলে আপনার রাজ্যের ভালো হবে। না হলে উত্তরপ্রদেশ পিছোচ্ছে। আগামী দিনে সবচেয়ে পিছনের রাজ্য হয়ে যাবে’।

পঞ্চায়েত নির্বাচনের ভোট গণনার দিন ট্যুইট করেন অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা। তাঁর দাবি, ‘পশ্চিমবঙ্গে পঞ্চায়েত ভোটে হিংসার কারণে অসমের ধূবড়ি জেলায় আশ্রয় চেয়েছিলেন ১৩৩ জন। আমরা তাঁদের ত্রাণ শিবিরে আশ্রয় দিয়েছি। দেওয়া হয়েছে খাবার ও স্বাস্থ্য পরিষেবাও।’

Avatar
Sudipto

সম্পর্কিত খবর