মাত্র ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকায় শুরু করতে পারেন এই ব্যবসাগুলি! প্রতি মাসে আয় হবে ৫০ হাজার টাকা

বাংলা হান্ট ডেস্ক: বর্তমান সময়ে আমাদের দেশের নবীন প্রজন্মের মধ্যে একটা বড় অংশ প্রথাগতভাবে চাকরির পথে না হেঁটে যুগের সাথে তাল মিলিয়ে বিভিন্ন নতুন উদ্যোগ বা স্টার্টআপ (Startup) শুরু করছে। পাশাপাশি সেইসব স্টার্টআপগুলি সফলতাও পাচ্ছে। মূলত, মানুষের দৈনিক চাহিদা পূরণ করতে সচেষ্ট হচ্ছে সেগুলি। এমতাবস্থায়, আপনিও যদি একটি স্টার্টআপ শুরু করতে চান, সেক্ষেত্রে বর্তমান প্রতিবেদনে আমরা কিছু লাভজনক ব্যবসায়িক প্রসঙ্গ (Business Ideas) উপস্থাপিত করব। যা আপনার কাজে আসতে পারে। এই ব্যবসাগুলি মাত্র ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকার বিনিয়োগের সাথে শুরু করেই অল্পসময়ের মধ্যে এগুলি থেকে দুর্দান্ত লাভ পেতে পারেন।

১. ফল এবং সবজির ব্যবসা: আপনি যদি ৫ থেকে ১০ হাজার টাকা খরচ করে একটি ব্যবসা শুরু করতে চান, সেক্ষেত্রে ফল এবং সবজির স্টার্টআপ একটি দুর্দান্ত বিকল্প হতে পারে। এর জন্য, আপনাকে ৫ হাজার টাকার ফল এবং সবজি কিনতে হবে। বাকি টাকা দিয়ে আপনি একটি ছোট দোকান ভাড়া নিতে পারেন। এমতাবস্থায়, এক সপ্তাহের মধ্যেই এইসব ফল ও সবজি বিক্রি করে ভালো মুনাফা পেতে পারবেন। এটা হল সবচেয়ে কম বিনিয়োগের ব্যবসা।

২. ফুলের ব্যবসা: আমাদের দেশে প্রতিদিন ফুলের বিপুল চাহিদা পরিলক্ষিত হয়। কারণ ফুল থেকে তৈরি মালা মন্দির, মসজিদ সহ বিভিন্ন ধর্মীয় স্থানে প্রয়োজন হয়। এছাড়াও, বিভিন্ন অনুষ্ঠানেও ফুলের দরকার পড়ে। এমতাবস্থায়, এই ব্যবসার মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই দৈনিক ২ থেকে ৪ হাজার টাকা আয় করতে পারেন। জানিয়ে রাখি যে, ফুলের ব্যবসা শুরু করতে আপনাকে ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকা বিনিয়োগ করতে হবে।

৩. ফাস্টফুডের ব্যবসা: আজকাল বড় বড় শহরাঞ্চল থেকে শুরু করে প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলেও ফাস্টফুডের জনপ্রিয়তা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। পাশাপাশি, বিভিন্ন অনুষ্ঠানেও চাউমিন, এগরোল, বার্গারের বিপুল চাহিদা পরিলক্ষিত হয়। এমন পরিস্থিতিতে, আপনি যদি খাবারের ব্যবসায় আগ্রহী হন সেক্ষেত্রে আপনি অবশ্যই একটি ফাস্টফুডের স্টল শুরু করে ভালো অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

 ৪. লন্ড্রি-র স্টার্টআপ: আপনি ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকা বিনিয়োগ করে একটি লন্ড্রি-র স্টার্টআপ শুরু করতে পারেন। কারণ বড় শহরগুলিতে স্থিত বাসিন্দাদের কর্মব্যস্ত জীবনে লন্ড্রি-র জন্য পর্যাপ্ত সময় থাকেনা। এমতাবস্থায়, আপনি একটি জনবহুল এলাকায় এই পরিষেবা শুরু করতে পারেন। যার জন্য আপনাকে বাড়িতে এই কাজের জন্য একটি ছোট সেটআপ স্থাপন করতে হবে।

৫. আচার ব্যবসা: ভারতের প্রায় প্রতিটি বাড়িতেই আচার খাওয়া হয়। আট থেকে আশি প্রত্যেকেই এটি খেতে পছন্দ করেন। তাই, চাহিদার কথা মাথায় রেখে বাজারেও অনেক রকমের আচার পাওয়া যায়। এমন পরিস্থিতিতে, আপনি ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকা বিনিয়োগ করে বাড়িতে বসেই আচারের ব্যবসা শুরু করতে পারেন। পাশাপাশি, এই ব্যবসায় আপনি মহিলাদেকেও অন্তর্ভুক্ত করতে পারেন। এদিকে, বাজারে আচারের চাহিদা অনেক বেশি থাকায় আপনি প্রতি মাসে খুব সহজেই ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন।

৬. পাঁপড় ব্যবসা: আচারের মত পাঁপড়ও আমাদের দেশে অত্যন্ত জনপ্রিয়। পাশাপাশি, খাওয়ার শেষে পাঁপড় খেতে পছন্দ করেন সকলেই। এমতাবস্থায়, এর বিপুল চাহিদার কথা মাথায় রেখে আপনি বাড়িতে বসেই পাঁপড় তৈরির ব্যবসা শুরু করে দিতে পারেন। পাশাপাশি, নিজস্ব ব্র্যান্ড তৈরি করেও বাজারে পাপড় বিক্রি করতে পারেন।

Business Ideas,Business,Money,India,National,Income,Profit,Indian Rupees,laundry business,Flower Business,pickle business,Papad Business,Indian Rupee

এমতাবস্থায়, এই উপায়গুলির সাহায্যে আপনি স্বল্প বিনিয়োগের মাধ্যমেই বাড়িতে বসে আপনার পছন্দ মত ব্যবসা শুরু করতে পারেন। মূলত, এই ধরণের ছোট ব্যবসায় ক্ষতির সম্ভাবনা খুব কমই থাকে। পাশাপাশি, ব্যবসাগুলি শুরুর মাধ্যমে আপনি ভালো অঙ্কের লাভও করতে পারবেন।

Sayak Panda
Sayak Panda

সায়ক পন্ডা, মেদিনীপুর কলেজ (অটোনমাস) থেকে মাস কমিউনিকেশন এবং সাংবাদিকতার পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কোর্স করার পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। ২ বছরেরও বেশি সময় ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর