ফ্রি ফ্রি ফ্রি! বিনামূল্যে সাক্ষী থাকবেন ইতিহাস থেকে প্রকৃতির, ঘুরে আসুন দিল্লির এই ২৫ জায়গা

বাংলাহান্ট ডেস্ক : ঐতিহাসিক ও রাজনৈতিক দিক থেকে দিল্লির গুরুত্ব অপরিসীম। সেই প্রাচীনকাল থেকেই এই জনপদ দেশ-বিদেশের বহু মানুষকে আকর্ষণ করেছে। আজও বিশ্বের প্রতিটি প্রান্ত থেকে পর্যটকেরা ছুটে যান দিল্লি। দিল্লির ঐতিহাসিক গুরুত্ব এই জায়গাটিকে আরো সমৃদ্ধ করে তুলেছে। ঘুরতে যেতে পছন্দ করেন না এমন বাঙালি বিরল।

   

কিছুদিনের ছুটি হাতে পেলেই আমরা বেরিয়ে পড়ি বাড়ি থেকে। অনেকেই রয়েছেন যারা দিল্লী ভ্রমণের জন্য ইচ্ছুক। তবে অনেক সময় একসাথে একাধিক জায়গা ভ্রমণ ব্যয়বহুল হয়ে ওঠে। তাই আমরা সকলেই চাই কম খরচে কীভাবে ভ্রমণ করা যায় সেই দিকটি খেয়াল রাখতে। এমন অবস্থায় আমরা দিল্লির এমন ২৫ টি জায়গা সম্পর্কে আপনাদের বলব যেখানে আপনারা বিনামূল্যে ভ্রমন করতে পারেন।

আরোও পড়ুন : সুখবর! আবেদন করলেই অ্যাকাউন্টে মিলবে ১০০০০ টাকা, বড় প্রকল্প পশ্চিমবঙ্গ সরকারের

১. হযরত নিজামুদ্দিন রহ: দিল্লির নিজামুদ্দিন এলাকায় অবস্থিত এটি। এখানে কাওয়ালীর আসর বসে প্রতি বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টা ও ৬:১৫ মিনিটে।

২. তাউ দেবী লাল পার্ক: পক্ষী প্রেমীদের জন্য এই জায়গাটি আদর্শ। এখানে আপনারা বিভিন্ন জাতের পাখি দেখতে পাবেন।

৩. লাইব্রেরি: একটি অবৈতনিক লাইব্রেরী রয়েছে দিল্লির সরিতা বিহারে। এখানে বিনামূল্যে আপনারা বই পড়তে পারেন।

৪. সাইক্লিং ক্লাব: এখানে বিনামূল্যে আপনারা নথিভুক্ত হতে পারেন।

৫. অগ্রসেনের সোপান: কনট প্লেসের কাছে অবস্থিত এই জায়গাটি। ১০৫টি ধাপ তৈরি হয়েছে এই কূপের ভিতর।

আরোও পড়ুন : খরচ বাড়বে ভ্রমণের, ৫ বছর পর বড় সিদ্ধান্ত নিল রেল! এবার খসবে এত টাকা বেশি

৬. আমেরিকান সেন্টার: চলচ্চিত্র প্রেমীরা অবশ্যই একবার বিনামূল্যে আমেরিকান সেন্টার ভিজিট করতে পারেন। প্রতিদিন নতুন নতুন চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হয় এখানে।

৭. লোধি গার্ডেন: ৯০০ একর এলাকা জুড়ে অবস্থিত এই পর্যটন কেন্দ্র। সবুজের সমারহে ঐতিহাসিক জায়গা অবশ্যই ঘুরে দেখতে পারেন বিনামূল্যে।

৮. ইন্ডিয়া গেট: এই স্মৃতি সৌধ সম্পর্কে নতুন করে বলার কিছু নেই। দিল্লি গেলে অবশ্যই ইন্ডিয়া গেট দেখতে যাবেন।

৯. বুদ্ধ জয়ন্তী পার্ক: ভগবান বুদ্ধের মূর্তি সহ একাধিক দ্রষ্টব্য জিনিস রয়েছে এই পার্কে।

১০. বাংলা সাহেব: বিনামূল্যে লঙ্গর খেতে পারেন বাংলা সাহেবে।

এছাড়াও দিল্লিতে বিনামূল্যে ভ্রমণের কয়েকটি জায়গা: 

পেন্সিল জ্যামার, গান্ধী স্মৃতি জাদুঘর, জাতীয় পুলিশ জাদুঘর, রাষ্ট্রপতি ভবন, ফিলাটেলিক মিউজিয়াম, এয়ার ফোর্স মিউজিয়াম, নেহেরু পার্ক, দিল্লি পাবলিক লাইব্রেরি, মেহরাউলি প্রত্নতাত্ত্বিক উদ্যান, ইতালীয় সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, লোটাস টেম্পল, জামে মসজিদ, ইন্ডিয়া হ্যাবিট্যাট সেন্টার, লোধি শিল্প জেলা, বোটানিক্যাল গার্ডেন

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর