হিজাব না পরলে হতে পারে ১০ বছরের জেলা! এই দেশে চালু হল আজব আইন

বাংলা হান্ট ডেস্ক : হিজাব বিদ্রোহ (Hijab Protest) দমনে মরিয়া ইরান (Iran) সরকার। তরুণী মাহসা আমিনির মৃত্যুতে যে বিপ্লব নাড়িয়ে দিয়েছিল দেশটির মোল্লাতন্ত্রকে তা ব্যর্থ করতে এবার আরও কড়া আইন আনতে চলেছে প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির প্রশাসন। বিল পাশ হলেই সেই আইন কার্যকরী হবে। যার জেরে হিজাব না পরলে ৫ থেকে ১০ বছরের জন্য জেলে যেতে হবে। গুনতে হবে বিপুল জরিমানা।

এখনও পর্যন্ত ইরানে যে আইন, তাতে ১০ দিন থেকে ২ মাস পর্যন্ত কারাবাসের সাজার নিদান রয়েছে। ভারতীয় মুদ্রায় জরিমানার অঙ্ক ৯৭ টাকা থেকে ৯৭৭ টাকা পর্যন্ত। কিন্তু কারাবাসের মেয়াদের মতোই জরিমানাও একলাফে বাড়িয়ে করা হয়েছে ৭ লক্ষ টাকা।

২০২২-এর ১৬ সেপ্টেম্বর ইরানের নীতি পুলিশের মারে মৃত্যু হয় ২২ বছরের কুর্দ তরুণী মাহসা আমিনির। ঠিকমতো হিজাব পরেননি, এটাই নাকি ছিল তাঁর অপরাধ। ওই ঘটনার পর থেকেই দেশজুড়ে শুরু হয় প্রতিবাদী মিছিল। স্বৈরশাসকের বিরোধিতায় ইটালির বুকে তৈরি হওয়া ‘বেলা চাও’ গানটি গেয়ে ইরানের রাস্তায় প্রতিবাদ জানাতে দেখা যায় মেয়েদের।

hijab

হিজাব বিরোধী (Anti-Hijab) সেই আন্দোলনে শামিল হন পুরুষদের একাংশও। বেকায়দায় পড়লেও অবস্থান বদলে নারাজ ইরানের সরকার। তেহরানের দাবি, এই বিক্ষোভের পিছনে হাত রয়েছে আমেরিকার। প্রতিবাদ দমনে নির্বিচারে বিক্ষোভকারীদের উপর গুলিবোমা চালাতে দেখা গিয়েছে। দেওয়া হয়েছে ফাঁসির সাজা। এবার হিজাব আইন আরও কড়া করে প্রতিবাদীদেরই বার্তা দিচ্ছে প্রশাসন।

আমিনির মৃত্যুর জেরে তুমুল বিক্ষোভের মুখে ইরানে নীতি পুলিসের কার্যক্রম কার্যত স্থবির হয়ে ছিল। তবে ইরান সরকার নীতি পুলিসের কার্যক্রম গুটিয়ে নেয়নি। এ বিষয়ে গত মাসের শুরুর দিকে ইরানি পুলিসের মুখপাত্র সাঈদ মনতাজেরোলমাহদি বলেন, নারীদের পোশাকের বিধান নিয়ে তদারকি কার্যক্রম আবারও শুরু করবে নীতি পুলিস।

Avatar
Sudipto

সম্পর্কিত খবর