টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

কেশপুরে তৃণমূল বিজেপির সংঘর্ষের জেরে আহত ৭, ভাঙচুর চলল পুলিশের গাড়িতেও

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ বাংলার বুকে আবারও তৃণমূল (All India Trinamool Congress) বিজেপি (Bharatiya Janata Party) সংঘর্ষ। কেশপুরের (Keshpur) রাজারডাঙা গ্রামে সংঘর্ষের জেরে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে। জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে তৃণমূল কর্মীরা মিছিল থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। সেই সময় বচসায় জড়ায় বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে।

বিজেপির অভিযোগ
বিজেপির পক্ষ থেকে অভিযোগ উঠেছে, তৃণমূল কর্মীরা মিছিল থেকে বাড়ি ফেরার পথে বিজেপি কর্মীদের উপর চড়াও হয়। তাদের মারধর করে। এমনকি তাদের বাড়িতেও ভাঙচুর চালায়। তৃণমূল বিজেপির হাতাহাতিতে তৃণমূলের ৩ জন কর্মী এবং বিজেপির ৪ জন কর্মী আহত হয়েছেন। তৃণমূল নেতা মহম্মদ রফির বিরুদ্ধে বিজেপি কর্মীদের গ্রাম ছাড়া করার হুমকি দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিজেপি সদস্যরা।

বিজেপি সদস্যরা আরও অভিযোগ করেছেন, বেশ কয়েক দিন আগে রাজারডাঙা গ্রামে বিজেপি কর্মীদের বাড়ি লক্ষ্য করে বোমা ছোড়ে তৃণমূল কর্মীরা। যার জেরে এলাকবাসী এখনও আতঙ্কে রয়েছে। বৃহস্পতিবারের এই ঘটনায় স্থানীয় দাপুটে তৃণমূল নেতা মহম্মদ রফির উস্কানিতে এই ঘটনা ঘটেছে বলেও অভিযোগ করা হয়েছে।

পাল্টা অভিযোগ করে তৃণমূল
তৃণমূলের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে তৃণমূলের তরফ থেকে মিছিলের আয়োজন করা হয়েছিল। সেই মিছিলে যোগ দেওয়ায় পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। যার ফলে বিজেপি কর্মীরা তাদের উপর হামলা চালায়। সেই কারণে এই সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়েছে। সংঘর্ষের জেরে আবার আশঙ্কাজনক অবস্থায় থাকা ৩ জনকে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ঘটনার খবর পেয়ে পরিস্থিতি সামাল দিতে সেখানে আনন্দপুর থানার পুলিশ পৌঁছালেও কোন লাভ হয় না।উত্তেজিত জনতারা সংঘর্ষের মধ্যে থেকে পুলিশের গাড়িতেও ভাঙচুর চালায়।

Back to top button