সাংসদ-বিধায়কদের বেতন দিয়ে জব কার্ড হোল্ডারদের টাকা দেব! দিল্লি থেকে ঘোষণা অভিষেকের

বাংলা হান্ট ডেস্ক: কেন্দ্র টাকা না দিলে আড়াই হাজার জব কার্ড হোল্ডারের (Job Card Holder) প্রাপ্য টাকা দরকার হলে বাংলার জনপ্রতিনিধিরা নিজেদের বেতন (Salary) দিয়ে মেটাবেন! যন্তর-মন্তরে দাঁড়িয়ে এমনটাই প্রতিশ্রুতি দিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)।

   

যন্তর-মন্তরে (Jantar Mantar) ধর্নায় বক্তব্য রাখার সময় অভিষেক বলেন, ‘দু’বছর যাদেরকে কাজ করিয়ে রাখার পর যাদের পারিশ্রমিক আটকে রাখা হয়েছে টাকা আমরা দেব। রাজ্য সরকারের উপর যদি চাপ সৃষ্টি হয়, আমি আপনাদের কথা দিচ্ছি, আমরা এখানে সাংসদ-বিধায়করা রয়েছি, আমাদের ৭০ হাজারের বেশি জনপ্রতিনিধি রয়েছে। আমাদের বেতনের টাকায় আপনাদের দু’মাসের মধ্যে টাকা দেব। ৩০ নভেম্বরের মধ্যে আমরা সব টাকা দেব। যন্তর-মন্তরে এই কথা বলে যাচ্ছি।’

অভিষেক আরও বলেন, ‘দু’মাসের মধ্যে ফের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) নেতৃত্বে সভা হবে। কেন্দ্র যদি বাংলার দাবি না মানে, ফের দিল্লির বুকে সভা করবে তৃণমূল (TMC)। এরপর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে এক লক্ষ মানুষকে নিয়ে দিল্লিতে আসব।’ তাঁর আরও দাবি, ‘আজ আন্দোলনের শেষ নয়, আজ থেকে আন্দোলনের শুরু। আর কেন্দ্রের থেকে আমরা সুদ সমেত থাকা ফেরত নেব।’

ওই মঞ্চ থেকে বিজেপিকে (BJP) উপড়ে ফেলারও বার্তা দিয়েছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, ‘বিজেপি সরকার হীরক রাজা। দড়ি ধরে মারো টান, জমিদার হবে খান খান।’

abhishek delhi

এদিকে গিরিরাজ সিং (Giriraj Singh) সময় না দেওয়ার জন্য তীব্র কটাক্ষ করেছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রী গিরিরাজ সিং তৃণমূলের প্রতিনিধি দলকে মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় সময় দিয়েছিলেন। কিন্তু পরে সময় বদলে দেওয়া হয়। চিঠিতে জানানো হয়, মন্ত্রী থাকবেন না। তাই সন্ধে ৬টায় দেখা করবেন। তাঁর বিমান নামবে ৫টায়। এদিকে শুনলাম শুভেন্দু অধিকারীকে (Suvendu Adhikari) বিকেল ৪টে নাগাদ সময় দেওয়া হয়েছে।’

Avatar
Monojit

সম্পর্কিত খবর