৪টে মাস্টার ডিগ্রি, সঙ্গে পিএইচডি করেও মেলেনি যোগ্য সম্মান! চাকরি ছেড়ে সবজি ফেরি করছেন যুবক

বাংলা হান্ট ডেস্ক : ছোটো থেকে মা বাবা তার সন্তানদের বলে আসতেন, ভালো করে পড়াশোনা করলে ভালো জায়গায় চাকরি পাওয়া যায়। কিন্তু ভালো করে পড়াশোনা করে ডিগ্রির পর ডিগ্রি বাড়িয়েও তাঁর কপালে জুটলও না সেই ভালো চাকরি। ১১ বছর ধরে শিক্ষকতা (Teaching) করে, তিনি এখন সবজি বিক্রেতা (PhD Vegetable Seller)। কে সেই ব্যক্তি? চলুন দেখেনি।

   

পাঞ্জাবের পাটিয়ালা বিশ্ববিদ্যালয়ের চুক্তিভিত্তিক অধ্যাপক ছিলেন সন্দীপ সিং (Sandeep Singh)। প্রায় ১১ বছর ধরে শিক্ষকতা করেছেন তিনি সেখানে। তিনি পাঞ্জাবি ভাষার পাশাপাশি সাংবাদিকতা, পলিটিকাল সায়েন্স এবং আইনে মাস্টার ডিগ্রী করেছেন। এছাড়া তিনি নিজের পিএইচডি কমপ্লিট করেছেন। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত তিনি বর্তমানে সবজি বিক্রেতা।

গত ১১ বছর ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ে (University) চাকরি করলেও বেতন অনেক কম ছিল তাঁর। তারপর সময়মত বেতনও পেতেন না তিনি। তাছাড়া অনেকবারই এমন হয়েছে তাঁর বেতন কমিয়ে নেওয়া হয়েছে। সন্দীপ বলেছেন, ‘এভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের চাকরি করে সংসার চালানো সম্ভব হয়ে উঠছিলও না। তাই নিজের পরিবারের কথা ভেবে আমি এই পথ বেছে নিয়েছি’।

phd44

তাই সন্দীপ চাকরি ছেড়ে এখন বাড়ি বাড়ি গিয়ে সবজি বিক্রি করছেন। তিনি মূলত ঠেলাতে করে সবজি বিক্রি করেন। তাঁর ঠেলা গাড়িতে একটি বোর্ড লাগানো আছে, সেখানে লেখা আছে, ‘পিএচডি সবজি-ওয়ালা’ (PHD Sabjiwalla)। তবে এখানেই কিন্তু তিনি থেমে থাকেননি, অধ্যাপকের চাকরি ছাড়লেও তিনি পড়াশোনার কথা বা পড়ানোর কথা ভুলতে পারেন না। যে কারনে তিনি এখন বি লিব নিয়ে পড়াশোনা করছেন। সেইসাথে তাঁর ইচ্ছে আছে, টাকা জমিয়ে একদিন টিউশন সেন্টার খুলবেন।