মোদী কূটনীতির দাপট! ৫ বন্দি ভারতীয় নাবিককে ফেরাল ইরান, বিরাট জয় ভারতের

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক: কিছুদিন আগের কথা, কতার থেকে ভারতীয় নৌবাহিনীর ৮ প্রাক্তনীকে ছড়িয়ে আনে ভারত (India)। সেখানের কূটনৈতিক সাফল্য পাওয়ার পর আরো একটি বড় কূটনৈতিক সাফল্য এসেছে। ইজরায়েলের (Israel) এক পর্তুগিজ কার্গোতে থাকা ৫ ভারতীয়কে ছেড়ে দিল ইরান। বহুদিন ধরেই তাদের মুক্তির চেষ্টা চালাচ্ছিল নয়াদিল্লি, অবশেষে তেহরান মুক্তি দেয় তাদের।

ইরানের ভারতীয় দূতাবাসে থাকা কর্মকর্তারা জানিয়ে দিয়েছেন এই কথা। পর্তুগিজ পতাকাবাহী জাহাজ MSC Aries-এর ৭ সদস্যকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে ইরানের তরফে। গত ১৩ এপ্রিল তারা জাহাজটিকে আটক করে। মুক্তির বিষয়ে পর্তুগালের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায় যে, মুক্তিপ্রাপ্তদের মধ্যে রয়েছে ৫ ভারতীয়, এক ফিলিপিনো এবং একজন এস্তোনিয়ান নাগরিক।

ইরান এই জাহাজটিকে আটক করে ইজরায়েলের সাথে যোগাযোগের কারণে। অবশেষে সেই আটক করা জাহাজ থেকে ৭ ক্রু মেম্বারের মুক্তি মিলেছে। তবে এখনই শেষ নয়, এখনো আলোচনা চলছে ১৭ জন ক্রু সদস্যদের মুক্তির বিষয়ে। পর্তুগাল এখন সেই নিয়ে দরবার করছে। ইরানের ইসলামিক বিপ্লবী গার্ড কর্পস গত ১৩ এপ্রিল হরমুজ প্রণালীর কাছে MSC Aries দখল করে। দখল করার সময় জাহাজে মোট ১৭ জন ভারতীয় নাগরিক ছিলেন।

আরও পড়ুন:মাঝ আকাশেই দাউদাউ করে জ্বলছে বাংলাদেশের যুদ্ধবিমান, মুখ থুবড়ে পড়ল, মৃত ১ পাইলট

কী জানিয়েছে ইরান?

আসলে ইজরায়েল এবং ইরানের মধ্যে সংঘর্ষের সময়ই জাহাজটিকে আটক করে ইরানের সেনা। জাহাজ আটকের পর ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র তার বয়ানে বলেন, ‘এটা নিশ্চিত যে এই জাহাজ ইহুদি শাসনের সঙ্গে যুক্ত।’ জাহাজে থাকা ভারতীয় ক্রু মেম্বারদের মুক্তির জন্য তেহরানের সাথে আলোচনা চালায় নয়াদিল্লি। ১৪ এপ্রিল ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর কথা বলেন ইরানের বিদেশমন্ত্রী হোসেইন আমির-আব্দুল্লাহিয়ানের সাথে। ভারতীয় ক্রুদের মুক্তি নিয়ে আলোচনা করেন তিনি।

আরও পড়ুন:স্যাম পিত্রোদায় রক্ষে নেই দোসর মণিশঙ্কর! প্রবীণ নেতার পাকিস্তান প্রীতি উথলে উঠতেই বিপাকে কংগ্রেস

এস জয়শঙ্করের সাথে আব্দুল্লাহিয়ানের কথার পর ভারতীয় কর্মকর্তাদের ক্রুদের সঙ্গে দেখা করার অনুমতি দেওয়া হয় । ভারতীয় ক্রু মেম্বার ছাড়া সেই জাহাজে ছিল দুজন পাকিস্তানি, একজন রাশিয়ান এবং একজন এস্তোনিয়ান। উল্লেখ্য, জাহাজে থাকা একমাত্র মহিলাকে কয়েকদিনে পরই মুক্তি দিয়ে দেওয়া হয়।

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর