টাইমলাইনঅন্যান্য

একটি পোকার দাম কোটি টাকারও বেশি! একটি কারণে কিনতে লাইন লাগায় অজস্র মানুষ

বাংলা হান্ট ডেস্ক: সমগ্র বিশ্বজুড়ে অনেকেই বাড়িতে পছন্দের পোষ্যকে রাখতে পছন্দ করেন। একাকীত্ব কাটাতেই হোক কিংবা কর্মব্যস্ততার পর অবসরে, পোষ্যের সাথে সময় কাটাতে পছন্দ করেন সকলেই। পাশাপাশি, নিজের পছন্দের পোষ্য কিনতে অনেকেই লক্ষ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ব্যয় করে ফেলেন। কিন্তু, পোষ্য হিসেবে পোকা কিনতে গিয়ে কোটি টাকা ব্যয়ের ঘটনা আপনি কি কখনও শুনেছেন?

হ্যাঁ, শুনতে অদ্ভুত মনে হলেও এটা একদমই সত্যি! একটি পোকাও পোষ্য হিসেবে পরিগণিত হতে পারে! পাশাপাশি তার দামও উঠতে পারে কোটি টাকার কাছাকাছি। বিশ্বাস না হলে এই পুরো প্রতিবেদনটি আপনাকে পড়তেই হবে। কারণ, বর্তমান প্ৰতিবেদনে আমরা পৃথিবীর সবচেয়ে দামি পোকার প্রসঙ্গটিই উপস্থাপিত করব।

এই পোকাটি স্ট্যাগ বিটল (Stag Beetle) নামে পরিচিত। পাশাপাশি, এই পোকাটিকেই কোটি টাকায় কিনে বাড়ির পোষ্য বানাতে রীতিমতো প্রতিযোগিতায় নেমে পড়েন কিছু মানুষ। যে কারণে এখন সবার আলোচনার শীর্ষে উঠে এসেছে এই গুবরে জাতীয় পোকাটি।

আমরা প্রায়শই বাগান বা গাছের চারপাশে বিভিন্ন রকম পোকামাকড়ের উপস্থিতি লক্ষ্য করি। কিছু মানুষ এদের রক্ষণাবেক্ষণ করলেও অধিকাংশ মানুষই এদের থেকে দূরেই থাকতে পছন্দ করেন। কিন্তু স্ট্যাগ বিটল এমনই এক প্রজাতির পোকা, যা কিনতে মানুষ কোটি কোটি টাকা পর্যন্ত খরচ করতে দ্বিধা বোধ করেন না।

আসলে, স্ট্যাগ বিটল একটি বিরল প্রজাতির পোকা হিসাবে বিবেচিত হয়। যার দেহের দৈর্ঘ্য মাত্র ২ থেকে ৩ ইঞ্চি। যেই কারণে, স্ট্যাগ বিটলকে পৃথিবীর সবচেয়ে অনন্য, অদ্ভুত এবং অন্যতম ছোট পোকার প্রজাতি হিসাবে বিবেচনা করা হয়। যেটিকে কাছ থেকে দেখলে আপনিও এটিকে পছন্দ করতে বাধ্য হবেন।

সারা বিশ্বে ১,২০০ টিরও বেশি পরিচিত প্রজাতির স্ট্যাগ বিটল রয়েছে। তবে তাদের মধ্যে মাত্র কয়েকটি প্রজাতিই আকর্ষণীয় এবং মূল্যবান বলে বিবেচিত হয়। কিছু কিছু ক্ষেত্রে উৎসাহী মানুষরা এই পোকা কিনতে ১ কোটি টাকা পর্যন্ত খরচ করতে প্রস্তুত থাকেন। যেখানে সাধারণত পোকামাকড়ের জন্য কেউ ১০ টাকাও খরচ করতে পছন্দ করেন না।

স্ট্যাগ বিটলের সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট্য হল এই পোকা গুলির শরীরের রঙ পরিবর্তিত হতে পারে। পাশাপাশি, এই প্রজাতির সমস্ত পোকামাকড়ের মাথার রঙ গাঢ় কালো এবং শিং-এর মতো আকৃতি রয়েছে। একটি স্ট্যাগ বিটলের গড় দৈর্ঘ্য ২ থেকে ৩ ইঞ্চি হয়, যদিও জাপানে পাওয়া স্ট্যাগ বিটলগুলির দৈর্ঘ্য ৮ থেকে ১২ ইঞ্চি পর্যন্ত হতে পারে।

এই কারণেই জাপান সহ আন্তর্জাতিক বাজারে এই পোকার উচ্চ চাহিদা রয়েছে। কারণ বহু মানুষ এই প্রজাতির সবচেয়ে বড় পোকাগুলিকে বাড়িতে শখের বশবর্তী হয়ে পালন করতে পছন্দ করেন। এছাড়াও, জেনে অবাক হবেন যে, স্ট্যাগ বিটলের প্রারম্ভিক মূল্য হয় প্রায় ৬৫ লক্ষ টাকা, যা কিনতে রীতিমতো বিডও করা হয়।

এই পোকা অনেক ধরনের ওষুধ তৈরিতে সাহায্য করে বলে জানা গেলেও বিশ্বাস করা হয় যে, এই পোকা বাড়িতে রাখা অত্যন্ত গর্বের ব্যাপার। এছাড়াও, পোকাগুলির উপরের ত্বক অত্যন্ত চকচকে হয়, যার কারণে এগুলিকে আরও আকর্ষণীয় দেখায় এবং রোদে রীতিমতো জ্বলজ্বল করে পোকাগুলি।

স্ট্যাগ বিটল একটি প্রাপ্তবয়স্ক পোকায় পরিণত হতে মাত্র কয়েক সপ্তাহ সময় নেয়। পাশাপাশি এগুলি উষ্ণ স্থানে দ্রুত বৃদ্ধি পায়। তবে, মাথায় রাখতে হবে যে, ঠাণ্ডা আবহাওয়া এই প্রজাতির পোকামাকড়ের জন্য অত্যন্ত মারাত্মক। তাই অত্যধিক ঠান্ডা জায়গায় এই পোকা বেশিক্ষণ বাঁচতে পারেনা।

এমতাবস্থায়, ঠান্ডা জায়গায় বেঁচে থাকার জন্য, এই পোকা গোবর বা কম্পোস্টের স্তূপের ভিতরে লুকিয়ে থাকে, যেখানে তারা নিজেদের বাঁচিয়ে রাখার জন্য যথেষ্ট তাপ পায়। পাশাপাশি, এই পোকা প্রায় ৭ থেকে ৮ বছর বেঁচে থাকতে পারে। এছাড়াও, এটি একটি সুপরিচিত পোষ্য প্রাণী হিসাবেও সমগ্র বিশ্বে বিবেচিত হয়।

Related Articles

Back to top button