টাইমলাইনবিনোদনরাজনীতি

সব সংবাদ চ‍্যানেলে মোদীর ভাষণ, ‘নীরব’ মমতা, সোশ‍্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ উগরে দিলেন অঙ্কুশ

বাংলাহান্ট ডেস্ক: গতকাল রবিবার আক্ষরিক অর্থেই ছিল ‘মেগা সানডে’। একদিকে কলকাতায় ব্রিগেডে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (narendra modi) জনসভা, অপরদিকে সেই সময় শিলিগুড়িতে রান্নার গ‍্যাসের অতিরিক্ত মূল‍্য বৃদ্ধির জন‍্য প্রতিবাদ মিছিলে নামেন মুখ‍্যমন্ত্রী মমতা বন্দ‍্যোপাধ‍্যায় (mamata banerjee)। দুজনের বক্তব‍্য শুনতেই সংবাদ চ‍্যানেল খুলেছিলেন অঙ্কুশ হাজরা (ankush hazra)। কিন্তু হতাশ হতে হল তাঁকে।

অভিনেতার অভিযোগ, সব চ‍্যানেলেই দেখানো হচ্ছে মোদী মমতার সভা। কিন্তু সেখানে শুধু মোদীর বক্তব‍্যই শোনা যাচ্ছে। মমতার কোনো বক্তব‍্যই শোনা যাচ্ছে না। সব সংবাদ চ‍্যানেলেই এই এক অবস্থা বলে অভিযোগ করেন অঙ্কুশ। ক্ষোভ সোশ‍্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করেছেন তিনি‌।


তিনি লেখেন, ‘সব নিউজ চ‍্যানেলে দুদিকের ভাষণই দেখতে পাচ্ছি। একটা কলকাতায় আরেকটা শিলিগুড়িতে। কিন্তু একদিকে আওয়াজ রয়েছে আরেকদিক সম্পূর্ণ নিঃশব্দ। শুধু ভিডিও চলছে। না আমি কোনো রাজনৈতিক দলের সমর্থক নই। কিন্তু একজন সাধারণ নাগরিক হিসাবে আমি দুদিকটাই শুনতে চাই। এটুকুই বলার।’

তবে এই পোস্টের জন‍্য অনেকে কটাক্ষও করেছেন অঙ্কুশকে। ডানদিকের বদলে যদি বামদিক নিঃশব্দ হতো তাহলে কি তিনি খুশি হতেন? পাল্টা দিতে ছাড়েননি অঙ্কুশ। তাঁর অভিযোগ, সবাই কোনো না কোনো পার্টির সমর্থক, এমনটা নয়। শুটিংয়ে বেরোনোর আগে রাজ‍্যের অবস্থা জানতে চাইছিলেন তিনি। দুটো দিক একসঙ্গে শোনা সম্ভব নয় তিনি জানেন। কিন্তু ঘুরিয়ে ফিরিয়ে তো শোনানো সম্ভব।

অঙ্কুশ আরো জানান, তাঁকে বলা হয়েছিল রাজনীতিতে আসতে চাইলে এটাই উপযুক্ত সময়। এই সময় দলগুলির তারকাদের প্রয়োজন। কিন্তু রাজি হননি অঙ্কুশ। তাঁর বক্তব‍্য, নিজে যেদিন নিজেকে প্রস্তুত মনে করবেন সেদিনই যাবেন তিনি।

এদিন মিঠুন চক্রবর্তীর বিজেপিতে যোগদানের খবর পেয়ে তাঁকে শুভেচ্ছাও জানান অঙ্কুশ। মিঠুনের সঙ্গে একটি ছবি শেয়ার করে তিনি লেখেন, ‘রাজনীতীর জগতে ভাল লোকেদের প্রয়োজন। তোমার নতুন সফরের জন‍্য শুভেচ্ছা রইল মিঠুনদা। খুব খুশি। আমার এখনো মনে আছে কয়েকদিন আগে তুমি কি বলেছিল আমাকে। তোমার মতো আরো মানুষ যেন সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ায় এটুকুই চাই। অনেক অনেক ভালবাসা।’

Related Articles

Back to top button