‘…সরু হয়ে যাচ্ছে’, মারাত্মক বিপদে কেষ্ট! হল টা কী? আদালতের নির্দেশে ভেঙে পড়লেন সুকন্যাও

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ গত বছর থেকে দুর্নীতির অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছেন শাসকদলের একাধিক নেতা মন্ত্রী। নিয়োগ দুর্নীতি, পুর নিয়োগ দুর্নীতি আর বর্তমানে রেশন বন্টন দুর্নীতি নিয়ে তোলপাড় রাজ্যে। তবে এখানেই শেষ নয়, গরু পাচার মামলার (Cow Smuggling Case) দায়ে বর্তমানে বাংলার সীমানা ছাড়িয়ে দিল্লির তিহাড়ে বন্দি রয়েছেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল (Anubrata Mondal)। এবার সেই তিহাড় থেকেই এল খারাপ খবর।

রেশন দুর্নীতি কাণ্ডে রাজ্যের প্রাক্তন খাদ্যমন্ত্রী তথা বর্তমান বনমন্ত্রীকে নিয়ে শোরগোলের মাঝেই অস্বস্তি বাড়লো একদা তৃণমূলের দাপুটে নেতা অনুব্রত মণ্ডলের। ফের একবার কেষ্ট মণ্ডলের জামিনের আর্জি খারিজ করে দিল আদালত।

মঙ্গলবার গরু পাচার মানলায় অভিযুক্ত বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল, কেষ্ট কন্যা সুকন্যা মণ্ডল, কেষ্টর প্রাক্তন দেহরক্ষী সায়গল হোসেন-সহ তিহাড়ে থাকা গরু পাচারে-যুক্ত বাকি অভিযুক্তদের ২৯ নভেম্বর পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ দিল দিল্লির রাউজ এভিনিউ কোর্টের।

অন্যদিকে সূত্রের খবর, এদিন শুনানির নিজের আইনজীবীদের শারীরিক অসুস্থতার কথা জানান অনুব্রত। তিনি বলেন তার ডান পায়ে ব্যাথা, পা ক্রমশ সরু হয়ে যাচ্ছে। হাঁটতে অসুবিধা হচ্ছে। অন্যান্য দিনের মতো এদিনের শুনানিতেও হুইলচেয়ারে আদালতে পৌঁছান ‘বীরভূমের বাঘ’।

আরও পড়ুন: BJP-র মামলা খারিজ! মমতাকে নিয়ে বিরাট রায় আদালতের, চরম স্বস্তিতে মুখ্যমন্ত্রী

শুধুই যে কেষ্ট অসুস্থ তেমনটা নয়। অসুস্থ কেষ্টর প্রাক্তন দেহরক্ষী সায়গল হুসেনও। সূত্রের খবর, জেল হেফাজতে থাকাকালীন হাতে আঘাত পেয়েছেন সায়গল। তাই হাতে ব্যান্ডেজ বেঁধেই কোর্টরুমে আসেন তিনি।

anubrata jail s

এদিন আদালতে হাজির ছিলেন অনুব্রতর হিসাবরক্ষক মনীশ কোঠারিও। জানা যাচ্ছে এদিন আদালতে গরু পাচার মামলায় সদ্য জামিনপ্রাপ্ত মনীশের সাথে কথা বলতে ছান অনুব্রত। কিন্তু তার সাথে কথা বলতে অস্বীকার করেন কোঠারি। সবমিলিয়ে চরম দুর্ভোগে বাংলার কেষ্ট।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর