টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

মেয়ের টেট পাস নিয়ে এবার মুখ খুললেন অনুব্রত, বললেন যা বোঝার আদালত বুঝবে

বাংলাহান্ট ডেস্ক : বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের মেয়ে সুকন্যা মন্ডলের টেট পাস না করেই সরকারি বিদ্যালয় চাকরি পাওয়া নিয়ে শুরু হয়েছে জোরদার বিতর্ক। তাছাড়াও সূত্রে খবর , শিক্ষকতা না করেই বিদ্যালয় উপস্থিত না হয়েই বাড়িতে রেজিস্ট্রার নিয়ে সই করে হাজিরার ব্যবস্থা করা হয়েছিল সুকন্যা মন্ডলের।

বৃহস্পতিবার কন্যা সুকন্যা মন্ডলের চাকরি বিতর্কে প্রথমবারের জন্য মুখ খুললেন তার বাবা তৃণমূল বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। তার দাবি তার মেয়ে সুকন্যা টেট উত্তীর্ণ হয়েছিলেন, তার সার্টিফিকেটও আছে।এই দিন হাসপাতাল যাওয়ার পথে তিনি দাবি করেন , “আমার মেয়ে ভাল আছে। আমার মেয়ের পাশ করা আছে। সার্টিফিকেট আছে। চিন্তার কারণ নেই’’। আলিপুর কমান্ড হাসপাতালে অনুব্রতকে স্বাস্থ্যপরীক্ষা করার জন্য নিয়ে যাচ্ছিল সিবিআই। হাসপাতালে যাওয়ার পথে অনুব্রত আরও বলেন, ‘‘ যা বোঝার আদালত বুঝবে। তলব করেনি মেয়েকে। নথি জমা দিতে বলেছে।’’

অনুব্রত মণ্ডলের নামে একের পর এক অভিযোগ চলাকালীনই কলকাতা হাইকোর্টে অভিযোগ করা হয় তার কন্যা সুকন্যা মন্ডলের বিরুদ্ধে। এমনকি তার নামের ফেসবুক প্রোফাইল অনুযায়ীও, তিনি একই সঙ্গে দু’টি চাকরি করেন যার একটি সরকারি, অন্যটি বেসরকারি।

হাইকোর্টে বুধবার অতিরিক্ত হলফনামা জমা দেওয়ার পাশাপাশি আইনজীবী ফিরদৌস শামিমের তরফে সুকন্যার চাকরির বিষয়টি আদালতকে জানানো হয় এবং সেটা শুনেই বৃহস্পতিবার বেলা ৩টের মধ্যে সুকন্যাকে কলকাতা হাই কোর্টে তলব করেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।

ইতিমধ্যেই বৃহস্পতিবার সকালে বোলপুরের নিচুপট্টির বাড়ি থেকে কলকাতায় এসেছেন সুকন্যা। সুকন্যার চাকরি বিতর্কের মাঝেই অনুব্রতর মন্তব্য এই পর্বে নয়া মাত্রা যোগ করল।

Related Articles