টাইমলাইনআন্তর্জাতিকঅন্যান্য

চলতি বছরেই আসতে চলেছে মহা বিপর্যয়! নস্ত্রাদামুসের ভবিষ্যদ্বাণী ঘুম ওড়াল বিশ্ববাসীর

বাংলা হান্ট ডেস্ক: “ভবিষ্যদ্বাণী” শব্দটি উচ্চারিত হলেই সবার প্রথমে যাঁর কথা মাথায় আসে তিনি হলেন বিখ্যাত ফরাসি ভবিষ্যদ্বক্তা নস্ত্রাদামুস (Nostradamus)। বহু যুগ আগেই তিনি তাঁর “লে প্রফেসি” নামের একটি বইতে বিশ্ববাসীর জন্য একাধিক ভবিষ্যদ্বাণী (Nostradamus Predictions) করেছিলেন। যেগুলির মধ্যে অন্তত ৭০ শতাংশ প্রতি বছর সত্য হিসেবে প্রমাণিত হয়। শুধু তাই নয়, তাঁর করে যাওয়া ভবিষ্যদ্বাণীগুলির মধ্যে হিটলারের শাসন, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ এবং ফরাসি বিপ্লবের মত ঘটনাগুলিও স্থান পেয়েছে।

এমনকি, ২০২১ সালের জন্য, তিনি মহামারী ও দুর্ভিক্ষের মতো ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন। এদিকে, ঘটনাচক্রে ওই বছরে করোনার মারণ প্রভাব বজায় ছিল। উল্লেখ্য যে, নস্ত্রাদামুস ১৫০৩ সালের ১৪ ডিসেম্বর জার্মানিতে জন্মগ্রহণ করেন। পাশাপাশি, তিনি মারা যান ১৫৬৬ সালের ২ জুলাই। এদিকে, তিনি চলতি বছর অর্থাৎ, ২০২২ সম্পর্কেও একাধিক ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন। যেগুলি জানার পর চমকে যাবেন সকলে।

এই বছর পরমাণু বোমা বিস্ফোরণের ভবিষ্যদ্বাণী: ২০২২ সাল সম্পর্কে, নস্ট্রাদামুস তাঁর ভবিষ্যদ্বাণীতে জানিয়েছিলেন যে, এই বছরে পারমাণবিক বোমার বিস্ফোরণ ঘটতে পারে এবং সেই কারণে জলবায়ুর পরিবর্তন ঘটবে। শুধু তাই নয়, এই বিস্ফোরণের ফলে পৃথিবীর অবস্থাও বদলে যেতে পারে বলে জানিয়েছিলেন তিনি।

মুদ্রাস্ফীতি সম্পর্কেও ভবিষ্যদ্বাণী: নস্ট্রাদামুস ৫০০ বছর আগে ২০২২ সাল সম্পর্কে মুদ্রাস্ফীতির ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন। তাঁর এই ভবিষ্যদ্বাণী অনুসারে, এই বছর জিনিসপত্রের দাম নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাবে। এছাড়াও, মার্কিন ডলারের দামও কমবে। সেই সঙ্গে তিনি বলেছেন, ২০২২ সালে মানুষ সোনা, রূপো এবং বিটকয়েনে আরও বেশি টাকা বিনিয়োগ করবে।

গ্রহাণুর দ্বারা ব্যাপক ক্ষতির সম্ভাবনা: নস্ট্রাদামুসের ভবিষ্যদ্বাণী অনুসারে, চলতি বছর গ্রহাণুর দ্বারা পৃথিবীর ব্যাপক ক্ষতি হতে পারে। পাশাপাশি, তিনি আরও বলেছিলেন যে, সমুদ্রে একটি বড় পাথর পড়ার ফলে প্রচণ্ড ঢেউয়ের কারণে পৃথিবী ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

একটি বড় ঝড় ফ্রান্সে ধ্বংস ডেকে আনবে: ফ্রান্স সম্পর্কেও নস্ট্রাদামুস ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন। তিনি জানিয়েছিলেন এই বছর ফ্রান্সে একটি বড় ঝড় হবে। যার কারণে বিশ্বের বহু অঞ্চলে ভয়াবহ দাবানল ছাড়াও খরা এবং বন্যা পরিস্থিতি দেখা যেতে পারে।

৭২ ঘণ্টার অন্ধকারে ছেয়ে যাবে সারা পৃথিবী: নস্ট্রাদামুস তাঁর ভবিষ্যদ্বাণীতে জানিয়েছেন, ২০২২ সালে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞের পর শান্তি ফিরবে। কিন্তু এই শান্তির আগে পুরো পৃথিবী মোট ৩ দিন অর্থাৎ ৭২ ঘণ্টা গভীর অন্ধকারে নিমজ্জিত থাকবে।

মানবজাতির উপর কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার আক্রমণ ঘটতে পারে: নস্ত্রাদামুস ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন যে, এই বছর কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (Artificial Intelligence) মানবজাতির উপর নিয়ন্ত্রণ করবে। এছাড়াও, রোবট মানব জাতিকে ধ্বংস করবে।

এর পাশাপাশি, নস্ত্রাদামুস তাঁর ভবিষ্যদ্বাণীতে ভূমধ্যসাগরে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার সময় বিস্ফোরণের সম্ভাবনার কথাও জানান।

Related Articles