৫০১ কিমির লম্বা সফর! মাথার চুল দিয়ে রামরথ টেনে অযোধ্যায় চলেছেন বাবা বদ্রী

বাংলা হান্ট ডেস্ক: অযোধ্যায় রাম মন্দিরে (Ayodhya Ram Mandir) শ্রী রামলালার প্রাণ প্রতিষ্ঠার অনুষ্ঠান মহাসমারোহে সম্পন্ন হতে চলেছে। যার জন্য ইতিমধ্যেই চলছে জোরকদমে প্রস্তুতি। পাশাপাশি, ভক্তরাও অযোধ্যার উদ্দেশ্যে রওনা দিতে শুরু করেছেন। ঠিক এই আবহেই এবার আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে উঠে এলেন একজন সাধু। তাঁর নাম হল বাবা বদ্রী। মূলত, তিনি অভিনবভাবে সফর শুরু করেছেন রাম মন্দিরের উদ্দেশ্যে। পাশাপাশি, তিনি অবাকও করেছেন প্রত্যেককেই।

   

মূলত, বাবা বদ্রী তাঁর প্রতিজ্ঞা পূরণের জন্য রামরথকে মাথার চুল দিয়ে টেনে পায়ে হেঁটে অযোধ্যার দিকে এগিয়ে চলেছেন। শুধু তাই নয়, বাবা বদ্রী এইভাবেই মাথার চুল দিয়ে রামরথ টেনে ৫০১ কিলোমিটার দূরত্ব অতিক্রম করবেন এবং আগামী ২২ জানুয়ারির আগে অযোধ্যায় পৌঁছবেন। এমতাবস্থায়, তিনি রামরথ নিয়ে উত্তরপ্রদেশের মহোবায় পৌঁছতেই রাম ভক্তরা তাঁকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান।

Baba Badri is going to Ayodhya pulling the Ram Rath by the hair of his head

বাবা বদ্রী এসেছেন মধ্যপ্রদেশের বাটিয়াগড় থেকে: এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, গত ১১ জানুয়ারি বাবা বদ্রী মধ্যপ্রদেশের দামোহ জেলার বাটিয়াগড় থেকে রামরথ নিয়ে অযোধ্যার উদ্দেশ্যে রওনা হন। রবিবার তিনি উত্তরপ্রদেশের মহোবা জেলায় পৌঁছে যান। সেখানে পৌঁছনোর পর রামভক্তরা ফুল বর্ষণ করে তাঁকে অত্যন্ত উৎসাহের সাথে স্বাগত জানান। উল্লেখ্য যে, বাবা বদ্রী প্রতিজ্ঞা করেছিলেন যে, তিনি বাটিয়াগড় থেকে ৫০১ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে অযোধ্যায় পৌঁছবেন। এইভাবে, তিনি আগামী ২২ জানুয়ারির আগে অযোধ্যায় পৌঁছে যাবেন এবং ভগবান শ্রী রামলালার অভিষেক অনুষ্ঠানেও যোগ দেবেন।

আরও পড়ুন: লাগবে না কোনো খরচ! BDO অফিসে না ছুটে এইভাবে নিজের মোবাইলে বদলান রেশন কার্ডে নাম-ঠিকানা

১৯৯২ সালে বাবা বদ্রী শপথ নেন: মূলত, ১৯৯২ সালে তিনি মাথার চুল দিয়ে রামরথ টেনে নিয়ে যাওয়ার শপথ নেন। এই প্রসঙ্গে বাবা বদ্রী জানান যে, ১৯৯২ সালে তিনি শপথ করেছিলেন যে, যখন অযোধ্যায় শ্রী রামলালার প্রাণ প্রতিষ্ঠা হবে তখন তিনি তাঁর মাথার চুল দিয়ে রামরথ টেনে নিয়ে অযোধ্যায় যাবেন এবং আজ সেই সময় এসেছে। পাশাপাশি, বাবা বদ্রী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে রাম মন্দির নির্মাণের নায়ক হিসেবে বর্ণনা করে জানান যে, “রাম ভক্তরা আজ যেরকম ভালোবাসা পাচ্ছেন, তা আগে কখনও পাননি।” বাবা বদ্রী বলেন, এইভাবে মাথার চুল দিয়ে রথ টেনে তিনি প্রতিদিন ৫০ থেকে ৬০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিচ্ছেন।

আরও পড়ুন: চিন সফরের পরেই অ্যাকশনে মুইজ্জু! এই দিনের মধ্যে ভারতকে সেনা প্রত্যাহারের জন্য “নির্দেশ” দিল মালদ্বীপ

২২ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে প্রাণ প্রতিষ্ঠার উৎসব: প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, আগামী ২২ জানুয়ারি অযোধ্যায় নবনির্মিত রাম মন্দিরে রামলালার প্রাণ প্রতিষ্ঠা সম্পন্ন হবে। যেখানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সহ ভারত ও বিদেশের একাধিক বিশিষ্ট ব্যক্তিরা অংশ নেবেন। ইতিমধ্যেই সমগ্ৰ দেশ থেকে ভক্তরা পাড়ি দিচ্ছেন অযোধ্যার উদ্দেশ্যে। পাশাপাশি, পুরো অযোধ্যা শহরকেও সুন্দরভাবে সাজিয়ে তোলা হচ্ছে।