টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

দেবীপক্ষেই কন্যা সন্তানকে রাস্তায় ফেলে গেল বাবা মা, পাহারা দিল কুকুর

চলছে দেবী পক্ষ। অবশেষে সারা বছর পর বাঙালির ঘরে এসেছে উমা। আনন্দে মজেছে আপামর বাঙালির। কিন্তু এসব তো উৎসবের কথা আদেও আজকের যুগে দাঁড়িয়ে কন্যা সন্তানকে কতখানি আপন করে নিতে পারি আমরা? কন্যা ভ্রুন হত্যা থেকে কন্যা সন্তানের জন্ম দেওয়ার পর মাকে বিভিন্ন অত্যাচারের সম্মুখীন হওয়া। আমরা পরে আছি সেই মধ্যযুগেই।

দেবী দূর্গার বোধনের দুদিন আগেই ফের একটি মর্মান্তিক ঘটনা উঠে এল সামাজিক মাধ্যমে। এক নেটিজেন জানিয়েছেন, তার মাসি ও অন্য একজন চতুর্থীর সন্ধ্যায় যাচ্ছিলেন বাজারে। পথে একটি কান্নার আওয়াজে থমকে যান তিনি৷ কাছে গিয়ে আবিষ্কার করেন এক শিশুকন্যাকে। যাকে আগলে রেখেছিল কয়েকটি পথ কুকুর৷

জানা গেছে, শিশুটি সাগর দত্ত মেডিকেল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই ডাক্তাররা জানান ঐ কন্যার বয়স মাত্র ১ দিন। পোস্ট অনুযায়ী বারাসাতের এক হোমে পাঠানো হবে শিশুটিকে। নেটিজেন সামাজিক মাধ্যমে অনুরোধ করেছেন, যদি কোনো সহৃদয় ব্যক্তি ওই শিশুর দ্বায়িত্ব নিতে চান তবে তিনি যেন হোম কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করেন।

বাঙালির ধর্মাচরণে চিরকালই মাতৃদেবীর আরাধনা। দূর্গা – কালি – লক্ষী – সরস্বতীর আরাধনা করলেও কিছু মানুষ আজও যে মধ্যযুগীয় ধ্যান ধারনা থেকে বেরোতে পারেন নি সকলে তারই ফের প্রমান মিলল এই ঘটনায়।

 

Back to top button