টাইমলাইনবিনোদন

জয়ের আনন্দ ফিকে, ভোটের ফল ঘোষনার দিনই আত্মহত‍্যার ঘটনা সোহমের পরিবারে

বাংলাহান্ট ডেস্ক: অনেকদিন আগেই তৃণমূলে (tmc) যোগ দিয়েছিলেন অভিনেতা সোহম চক্রবর্তী (soham chakraborty)। অন‍্যদের মতো আনকোরা নন তিনি। এবার পূর্ব মেদিনীপুরের চণ্ডীপুর কেন্দ্র থেকে নির্বাচনে লড়েছেন তিনি। জিতেওছেন। কিন্তু তাঁর জয়ের আনন্দ ম্লান হয়ে গিয়েছে এক দুসংবাদে। নির্বাচনের ফল ঘোষনার দিনই পরিবারে পাওয়া গেল মৃত‍্যুসংবাদ।

আত্মঘাতী হয়েছেন সোহমের শ‍্যালিকা পারমিতা নাথ। মাত্র ৩৫ বছরেই মৃত‍্যু হল তাঁর। ভোটের ফল ঘোষনার দিন অর্থাৎ রবিবারই কেষ্টপুরের এএইচ ব্লকের অভিজাত আবাসন থেকে তাঁর দেহ উদ্ধার হয়। আবাসনের দোতলায় নিজের ঘরে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার হয় তাঁর দেহ। পুলিস এসে দেহ ময়নাতদন্তে পাঠায়।

খবর পেয়ে রবিবার রাতেই ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন মৃতার দিদি অর্থাৎ সোহমের স্ত্রী। পারমিতাদেবীর আত্মহত‍্যার পেছনে তাঁর স্বামী রুদ্রপ্রসাদ ও শাশুড়ি বাসন্তী নাথের হাত রয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতেই গ্রেফতার করা হয় দুজনকে। জানা গিয়েছে, পারমিতার উপর প্রায়ই শারীরিক ও মানসিক অত‍্যাচার চালাতো তাঁর স্বামী ও শাশুড়ি।

পারমিতার উপর বিবাহ বিচ্ছেদের জন‍্যও চাপ দেওয়া হত বলে জানা গিয়েছে। মনে করা হচ্ছে দীর্ঘদিন ধরে অবসাদে ভুগেই আত্মহত‍্যার পথ বেছে নিয়েছেন পারমিতা। তাঁর স্বামী ও শাশুড়ির বিরুদ্ধে বধূ নির্যাতনের মামলা দায়ের হয়েছে বলে খবর পুলিস সূত্রে।

প্রসঙ্গত, এর আগে ২০১৬ তে বড়জোড়ায় প্রার্থী করা হয়েছিল সোহমকে। কিন্তু সেবার জয়ের মুখ দেখেননি অভিনেতা। তবে এতদিন যুব তৃণমূলের সহ সভাপতির দায়িত্ব নিষ্ঠা ভরেই সামলেছেন তিনি। এবার চণ্ডীপুর থেকে প্রার্থী হয়ে জয়ও ছিনিয়ে এনেছেন সোহম।

Back to top button