টাইমলাইনভারতআন্তর্জাতিক

মালদ্বীপে সুরক্ষা সম্পর্কিত আলোচনা করতে পৌঁছালেন বিপিন রাওয়াত! চাপে চীন-পাকিস্তান।

জলপথ ও সামরিকদিকের জন্য জন্য মালদ্বীপ একটা গুরুত্বপূর্ণ দেশ। একসময় ছিল যখন মালদ্বীপে চীনের ঘনিষ্ট রাষ্ট্রপতি ছিলেন। কিন্তু তৎপর আবার নির্বাচন এল, চীনের ষড়যন্ত্র করে আবার নিজের প্রভাবিত রাষ্ট্রপতিকে জেতানোর চেষ্টা করেছিল। তবে ভারতের সক্রিয়তার কারণে চীনের ষড়যন্ত্র সফল হয়নি, ফলস্বরূপ চীন দ্বারা প্রভাবিত রাষ্ট্রপতি হেরে যান। মালদ্বীপের প্রাপ্তন রাষ্ট্রপতি আবদুল্লা ইয়ামিন এর সময়কালে চীন ভারতকে সামুদ্রিকদিকে দুর্বল করার নানা পরিকল্পনা করেছিল। মালদ্বীপের বর্তমান রাষ্ট্রপতি ইব্রাহিম মহম্মদ সলিথ এর সময় চীনের দ্বারা কৃত ভারত বিরোধী ষড়যন্ত্রগুলিকে সংশোধন করে ঠিক করা হয়েছে। এখন ভারত লাগাতার মালদ্বীপের সাথে সম্পর্ক মজবুত করে চীনকে পাল্টা চাপে ফেলার কাজ শুরু করে দিয়েছে।

 

বুধবার মালদ্বীপের রাষ্ট্রপতি ইব্রাহিম সোলির সাথে ভারতীয় সেনা প্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত বৈঠক করেছেন। এদিকে, সোলিহ দ্বিপাক্ষিক প্রতিরক্ষা সম্পর্ক পুনরুদ্ধার করার প্রচেষ্টার প্রশংসা করেছেন। জেনারেল রাওয়াত ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে পাঁচ দিনের মালদ্বীপে ভ্রমণে রয়েছেন। এই সফরের উদ্দেশ্য মালদ্বীপের সাথে প্রতিরক্ষা সম্পর্ক জোরদার করা।  চীনও ভারত মহাসাগরের এই দ্বীপপুঞ্জ দেশে পা রাখতে চাইছে। জানিয়ে দি, চীন ভারতকে ঘেরার জন্য String of perls প্রজেক্ট শুরু করেছিল। ভারত পাল্টা চীনকে  জবাব দিতে Iron Curtain শুরু করেছে। যার জন্য মালদ্বীপ খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা দেশ।

 

ভারতীয় সেনাপ্রধান মালদ্বীপের রাষ্ট্রপতির সাথে প্রতিরক্ষা সহযোগিতা এবং তাদের শক্তিশালী করার উপায় নিয়ে আলোচনা করেছেন। ভারতীয় সেনাবাহিনী একটি বিবৃতি জারি করে জানিয়েছে যে মালদ্বীপের রাষ্ট্রপতি ভারত-মালদ্বীপের মধ্যকার দীর্ঘমেয়াদী বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের পাশাপাশি দ্বিপাক্ষিক প্রতিরক্ষা সহযোগিতা বাড়াতে দুই দেশের সেনাবাহিনীর যৌথ প্রচেষ্টার প্রশংসা করেছেন। উল্লেখ্য, ভারতের সরকার ও সেনা দুই ব্যাপক সক্রিয় রয়েছে। তাই এমন সময় সেনা প্রধান বিপিন রাওয়াত এর মালদ্বীপ যাত্রা খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়ায়।

 

জেনারেল রাওয়াত মঙ্গলবার মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল্লাহ শহীদের সাথে বৈঠক করে পারস্পরিক সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা করেন। এ ছাড়াও উভয় দেশই ভারত মহাসাগর অঞ্চলকে দ্বন্দ্ব-মুক্ত অঞ্চল হিসাবে গড়ে তোলার উপায় অনুসন্ধান করছে। জেনারেল রাওয়াত মালদ্বীপ জাতীয় প্রতিরক্ষা বাহিনীর (এমএনডিএফ) কাছে পরিবহন যানবাহনের একটি চালানও হস্তান্তর করেছিলেন। এটি বাহিনীর অপারেশনাল দক্ষতা বৃদ্ধি করবে। এর আগেই ভারত মালদ্বীপে হেলিকপ্টার এবং নজরদারি সরঞ্জাম সরবরাহ করেছিল। এখন ভারত চেন্নাইতে নির্মিত ইন্টারসেপ্টার বোটের প্রশিক্ষণ মালদ্বীপের তটরক্ষাকারী কর্মীদের দেবে।

Related Articles

Back to top button